৯ নভেম্বর, ২০২২ ১২:১৮

চলতি বছর ইউরোপে গরমে মারা গেছে ১৫ হাজার মানুষ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক

চলতি বছর ইউরোপে গরমে মারা গেছে ১৫ হাজার মানুষ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রতীকী ছবি

চলতি বছর ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রচণ্ড গরমে অন্তত ১৫ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এসব মানুষের মৃত্যুর কারণ হিসেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তাপপ্রবাহ, দাবানল ও খরার কথা জানিয়েছে। সংস্থাটি জানায়, চলতি বছর গরমে রেকর্ড তাপমাত্রা দেখেছে ইউরোপ। দাবানলে পুড়েছে অনেক এলাকা, ছিল খরাও। এই সবকিছুর প্রভাবেই এই অঞ্চলে চলতি বছরের এখন পর্যন্ত কারণে অন্তত ১৫ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

চলতি বছরের জুন থেকে আগস্ট- এই তিন মাস ছিল ইউরোপে সবচেয়ে উষ্ণ সময়। উচ্চ তাপমাত্রার কারণে মহাদেশজুড়ে সবচেয়ে ভয়াবহ খরা পরিস্থিতি তৈরি হয়। 

ইউরোপে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আঞ্চলিক পরিচালক হ্যান্স ক্লুগ এক বিবৃতিতে বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে স্পেন ও জার্মানি। এ পর্যন্ত পাওয়া বিভিন্ন দেশের তথ্যের ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে, ২০২২ সালে বিশেষ করে গরম আবহাওয়ার কারণে অন্তত ১৫ হাজার লোক মারা গেছে।

হ্যান্স ক্লুগ বলছেন, ইউরোপের মধ্যে জার্মানিতে ৪ হাজার ৫০০ জন, স্পেনে ৪ হাজার, পর্তুগালে ১ হাজার ও যুক্তরাজ্য ৩ হাজার ২০০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয় তাপপ্রবাহে। জুন থেকে আগস্ট—এই তিন মাসে মৃত্যু হয়েছে বেশি।
এ বছরের জুন ও জুলাইয়ে ইংল্যান্ডের তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি ছিল। প্রথমবারের মতো এত গরম পড়ে দেশটিতে। সূত্র: ডেইলি মেইল, গ্লোবাল টাইমস, রেডিও ফ্রান্স ইন্টারন্যাশনালে

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর