শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৪১

শঙ্কা-সম্ভাবনার দোলাচলে ভারতে বিরোধী মহাজোট

বিশেষজ্ঞদের অভিমত

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

শঙ্কা-সম্ভাবনার দোলাচলে ভারতে বিরোধী মহাজোট

কেন্দ্র থেকে নরেন্দ্র মোদির সরকারকে উৎখাত করতে ‘মহাজোট’ গঠনের জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিরোধীরা। গত জানুয়ারি মাসে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতার আহ্বানে সাড়া দিয়ে কলকাতার ব্রিগেডে ‘ঐক্যবদ্ধ ভারত’ সমাবেশে হাজির ছিলেন জাতীয় কংগ্রেস, আম আদমি পার্টি (আপ), রাষ্ট্রীয় জনতা দল (আরজেডি), বহুজন সমাজ পার্টি (বসপা) সহ ২৩টি দলের শীর্ষ নেতারা। কেন্দ্র থেকে বিজেপিকে হটাতে কলকাতার সভামঞ্চে দাঁড়িয়ে হাতে হাত রেখে তারা স্লোগান তুলেছিলেন ‘মোদি হটাও-দেশ বাঁচাও’। পরবর্তীতে চলতি ফেব্রুয়ারি মাসে দুই দিনের ব্যবধানে তেলেগু দেশম পার্টি (টিডিপি) নেতা চন্দ্রবাবু নাইডুর ধরনা মঞ্চ কিংবা আপ প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সমাবেশেও মোদিবিরোধী একাধিক মুখ দেখা গিয়েছিল। কিন্তু এত কিছু পরেও লাখ রুপির প্রশ্ন হলো মহাজোট কি আদৌ সফল হবে? মহাজোট সম্পর্কে কলকাতার রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ও রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ বিশ্বনাথ চক্রবর্তী জানান ‘সাম্প্রতিক দেশীয় ইস্যু, জাতপাতের রাজনীতি, সংখ্যালঘু ভোট, বিরোধী আঞ্চলিক নেতৃত্ব-সব মিলিয়ে মোদিবিরোধী জোট গঠনের যে প্রয়াস-তা সফল হলে মোদি-অমিত শাহ জুটি অস্বস্তিতে পড়বে। প্রবীণ সাংবাদিক সুবীর ভৌমিকের অভিমত ‘বিরোধীদের প্রস্তাবিত মহাজোট এখনো সেভাবে গড়ে উঠতে পারেনি। কবি সুবোধ সরকার জানান, ‘আসলে মোদি সরকার যে নোট বাতিলের মতো সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বা নীরব মোদি, বিজয় মাল্য-এর মতো মানুষরা ব্যাংক থেকে রুপি লোপাট করে বিদেশে বসে আছেনÑ এটা সাধারণ মানুষ ভালোভাবে মেনে নিচ্ছে না। মহাজোটের ভবিষ্যৎ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন ইংরেজির শিক্ষক ও রাজনীতি বিশেষজ্ঞ কৃশাণু ভট্টাচার্য। তার অভিমত, দেশের রাজনীতি অনেকটা ‘ঘোলা পানিতে মাছ ধরা’র মতো অবস্থা তৈরি হয়েছে।


আপনার মন্তব্য