শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ মার্চ, ২০২১ ২৩:৩৯

বাইডেনকে হারাতেও কলকাঠি নাড়ে রাশিয়া

বাইডেনকে হারাতেও কলকাঠি নাড়ে রাশিয়া

গেল নভেম্বরে অনুষ্ঠিত মার্কিন নির্বাচনে ফের হস্তক্ষেপ করেছিল রাশিয়া। এবারও ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জেতানোর জন্য সবকিছুই করেছে পুতিন বাহিনী। কিন্তু সফল হতে পারেনি। মঙ্গলবারই মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগ এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। তাতে বলা হয়েছে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্প যাতে জেতেন তার চেষ্টা করেছিলেন। ঠিক উল্টো প্রচারটা করেছিল ইরান। ট্রাম্প যাতে জিতে আসতে না পারেন, তার চেষ্টা করেছে তারা। আর চীন প্রথমে মার্কিন নির্বাচনকে প্রভাবিত করার কথা ভাবলেও শেষ পর্যন্ত কিছুই করেনি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্ভবত চীনের মনে হয়েছে, ট্রাম্প বা বাইডেন যিনিই জিতুন না কেন, আমেরিকার চীন সংক্রান্ত নীতির কোনো পরিবর্তন হবে না। তবে গোয়েন্দা রিপোর্টে সরাসরি অভিযুক্ত করা হয়েছে পুতিনকে। বলা হয়েছে, বাইডেন ও ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধাচরণের নির্দেশ তিনি দিয়েছিলেন। তিনি কর্মকর্তাদের ট্রাম্পকে জিতিয়ে আনার জন্য কাজ করার কথাও বলেছিলেন। পুরো চেষ্টাটাই ছিল, মানুষের আস্থা যাতে ট্রাম্পের ওপর বাড়ে এবং বাইডেনের ওপর কমে যায় তা নিশ্চিত করা। তবে রিপোর্টে এও বলা হয়েছে, ২০১৬ সালে যেমন নির্বাচনী পরিকাঠামোর ওপর সমানে সাইবার হানার চেষ্টা হয়েছিল, এবার সেটা হয়নি।

তবে মার্কিন গোয়েন্দাদের প্রকাশিত ১৫ পাতার ওই রিপোর্ট নিয়ে এবার মুখ খুলেছে রাশিয়াও। যুক্তরাষ্ট্রে রাশিয়ার দূতাবাসের তরফে ফেসবুকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘মার্কিন গোয়েন্দাদের তৈরি করা নথিতে একগুচ্ছ ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হয়েছে আমাদের দেশের বিরুদ্ধে। কোনো উপযুক্ত প্রমাণ বা তথ্য ছাড়াই এমন অভিযোগ করছে ওয়াশিংটন।’ রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, বাইডেনের ছেলের বিরুদ্ধে ইউক্রেনে ব্যবসা সংক্রান্ত ভুয়া অভিযোগ আনার চেষ্টা করছিলেন পুতিন। উদ্দেশ্য ছিল, ভোটের আগে বাইডেনের ভাবমূর্তি নষ্ট করা। মার্কিন রিপোর্ট অনুসারে, ইরান গোপনে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রচারাভিযান চালিয়ছিল। তবে শুধু রাশিয়া বা ইরান নয়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছে লেবাননের হিজবুল্লাহ, কিউবা এবং ভেনেজুয়েলা। তবে এই সব প্রয়াসই ছিল নানাভাবে প্রচার করে ভোটদাতার মত বদলের চেষ্টা। -এএফপি, বিবিসি।


আপনার মন্তব্য