শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ জুন, ২০২১ ২৩:৫৬

এবার মাস্ক ছাড়া বাইক মিছিলে

ব্রাজিল প্রেসিডেন্টের ফের জরিমানা

Google News

মাস্ক না পরে ফের বিপাকে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইরে বলসোনারো। শনিবার ব্রাজিলের শহর সাও পাওলোতে বাইক মিছিল করার সময় কভিড বিধি ভাঙার অভিযোগ উঠেছে প্রেসিডেন্ট ও তাঁর সঙ্গীদের বিরুদ্ধে। আর তাই খোদ প্রেসিডেন্টকেই জরিমানা করেছে সেই শহরের প্রশাসন। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে মারানহাও প্রদেশে জনসভা করতে গিয়ে একই ‘অপরাধ’ করেছিলেন তিনি। সেই সময়ও তাঁকে জরিমানা করা হয়। তার পরও নিজের কর্মকান্ড সামান্যও বদলাননি বলসোনারো। বছর ঘুরলেই ব্রাজিলে প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচন। করোনা পরিস্থিতি সামলানোয় ব্যর্থতা থেকে আর্থিক দুর্নীতির জেরে বলসোনারোর গদি টলমল করছে বলে দাবি সে দেশের রাজনৈতিক মহলের। গদি ধরে রাখতে এখন থেকেই দেশজুড়ে মিছিল, সভা করছেন প্রেসিডেন্ট। আর সেসব সভায় করোনাবিধি লঙ্ঘনই যেন শপথ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শনিবার সাও পাওলোতে বাইক মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন বলসোনারো। মাথায় হেলমেট থাকলেও তার মুখের অংশ ছিল খোলা। উপরন্তু মুখে ছিল না মাস্ক। এখানেই শেষ নয়। কঠোর করোনাবিধির তুমুল সমালোচনা করেন প্রেসিডেন্ট। বলেন, ‘যাঁরা করোনা টিকা নিয়েছেন, তাঁদের আর যাতে মাস্ক না পরতে হয়, সেই সম্পর্কিত আইন আনা হবে।’ বলসোনারোর কথায়, ‘কভিড ভ্যাকসিন নেওয়ার পর মাস্ক পরা কার্যত অবৈজ্ঞানিক। কারণ টিকা নেওয়া ব্যক্তিরা কখনোই করোনা সংক্রমণ ঘটাতে পারে না।’ যদিও জনস্বাস্থ্য আধিকারিক কিংবা চিকিৎসকরা এরকম কোনো নির্দেশিকাই জারি করেননি। বরং করোনা থেকে সুরক্ষিত থাকতে মাস্ক পরার পরামর্শ দিচ্ছেন তাঁরা।

জানা গেছে, শনিবার প্রেসিডেন্ট এবং পরিকাঠামো মন্ত্রী তারসিসিও গোমেজকে ১০৮ মার্কিন ডলার করে জরিমানা করা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের তরফে এখনো কোনো মন্তব্য করা হয়নি।