শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৮ জুলাই, ২০২১ ০০:০৬

সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনে ইরান হতাশ যুক্তরাষ্ট্র-ইউরোপ

সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম উৎপাদনে ইরান হতাশ যুক্তরাষ্ট্র-ইউরোপ
Google News

ইরান সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম ধাতু উৎপাদনের প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের আণবিক সংস্থা। গতকাল আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা (আইএইএ) এক বিবৃতিতে বিষয়টি প্রকাশ করে। এই খবরে হতাশা ব্যক্ত করেছে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানি। সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম ধাতু উৎপাদনের এই পদক্ষেপ ইরানের পরমাণু অস্ত্রধর রাষ্ট্র হয়ে ওঠার ক্ষেত্রে সহায়ক হতে পারে। আর এই পদক্ষেপ ইরানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক বিশ্বের পরমাণু চুক্তি পুনর্বাস্তবায়ন নিয়ে আলোচনাকে ঝুঁকির মুখে ফেলল বলেও মন্তব্য করেছে তারা। যুক্তরাষ্ট্র এই উদ্যোগ ‘পেছন দিকে যাওয়ার দুর্ভাগ্যজনক পদক্ষেপ’। সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের আমলে ইরান পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর চুক্তিটি পুনরুজ্জীবিত করার চেষ্টায় সম্প্রতি তেহরানের সঙ্গে পরোক্ষ আলোচনা শুরু করছে জো বাইডেনের সরকার। ইরান বলছে, তারা একটি গবেষণা চুল্লির জ্বালানির জন্য সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম ধাতু উৎপাদন করছে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের তিনটি দেশের কর্মকর্তারা বলছেন, তেহরানের এই পদক্ষেপ যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানকে ২০১৫ সালের চুক্তিতে ফেরাতে দুই দেশের মধ্যকার পরোক্ষ আলোচনাকে বানচাল করে দিতে পারে। ছয় বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরানের ওই চুক্তিতে তেহরানের পারমাণবিক কর্মসূচিতে লাগাম টানার বিনিময়ে তাদের ওপর আরোপ করা অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। ট্রাম্প চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর ইরানও চুক্তিতে থাকা অনেক বাধ্যবাধকতা থেকে নিজেদের সরিয়ে নেওয়া শুরু করে।

জানা গেছে, তেহরান চলতি বছর অল্প পরিমাণ ইউরেনিয়াম ধাতু উৎপাদন করেছে, তবে তার মাত্রা পরমাণু বোমা বানানোর মতো উন্নত নয়। ইরানের এই স্বল্প মাত্রার ইউরেনিয়াম ধাতু উৎপাদনও ২০১৫ সালের চুক্তির লংঘন। পারমাণবিক বোমার কেন্দ্রীয় অংশ বানাতে সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম ধাতু ব্যবহার যায়, যে কারণে ছয় বছর আগের চুক্তিতে এর উৎপাদন সংক্রান্ত সব কাজে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল।