শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি, ২০২১ ১২:২১
প্রিন্ট করুন printer

ইমানদার হতে হলে আল্লাহমুখী হতে হবে

মুহম্মাদ ওমর ফারুক

ইমানদার হতে হলে আল্লাহমুখী হতে হবে

ইমান অর্থ বিশ্বাস করা। আনুগত্য প্রকাশ করা। আল্লাহর কাছে অবনত হওয়া। ইমানদার ছাড়া কোনো বান্দার কোনো ভালো কাজের গুরুত্ব আল্লাহর কাছে নেই এবং পরকালে তার কোনো প্রাপ্তি নেই। আল্লাহর কৃপা পেতে হলে ইমানের বলে বলীয়ান হতে হবে।

হজরত আনাস (রা.) থেকে বর্ণিত। রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘ইমানের স্বাদ সে ব্যক্তিই পাবে যার মধ্যে তিনটি বিষয় পাওয়া যাবে। ১. আল্লাহ ও তাঁর রসুলের ভালোবাসা তার কাছে সব জিনিসের চেয়ে বেশি হওয়া। ২. যার সঙ্গেই তার ভালোবাসা হবে তা কেবল আল্লাহর জন্যই। ৩. ইমানের পর কুফরিতে ফিরে যাওয়া আগুনে নিক্ষিপ্ত হওয়ার মতো অপছন্দনীয় হওয়া।’ বুখারি ও মুসলিম।

উপরোক্ত হাদিসে ইমানদার বা মুমিনদের যাপিত জীবনের সবকিছুকে আল্লাহমুখী করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ কোনো মুমিন যদি কখনো কারও প্রতি ভালোবাসার প্রতিফলন ঘটায় তাও হতে হবে আল্লাহকে লক্ষ্য রেখে। আল্লাহ ও রসুলের প্রতি নিরঙ্কুশ আনুগত্যের মাধ্যমে ইমানের পরিপূর্ণ স্বাদ অন্বেষণ করা যায়। হজরত আব্বাস ইবনে আবদুল মুত্তালিব (রা.) থেকে বর্ণিত। তিনি রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছেন, ‘ইমানের স্বাদ ওই ব্যক্তি পেয়েছে যে আল্লাহকে নিজের রব, ইসলামকে নিজের দীন (জীবনবিধান) আর মুহাম্মদকে নিজের রসুল ও পথপ্রদর্শক হিসেবে মেনে নিতে রাজি হয়েছে।’ মুসলিম।

ইমানদার হতে হলে, নিজেকে সত্যিকারের মুমিন প্রমণ করতে চাইলে নিজের প্রবৃত্তি রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হেদায়েতের বশীভূত করতে হবে। হজরত আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘তোমাদের মধ্যে কোনো ব্যক্তিই মুমিন হতে পারবে না যে পর্যন্ত তার প্রবৃত্তি আমার আনীত হেদায়েতের বশীভূত না হয়ে যায়।’ শরহুস সুন্নাহ।

নিজের প্রবৃত্তি রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হেদায়েতের বশীভূত করার অর্থই হলো ভালো কাজের সঙ্গে যুক্ত হওয়া। যা কিছু খারাপ বা মন্দ তা থেকে দূরে থাকা। মুমিন বা ইমানদার হওয়ার জন্য যে এটি অপরিহার্য তা হাদিসে স্পষ্ট করা হয়েছে। হজরত আবু উমামা (রা.) থেকে বর্ণিত, ‘এক ব্যক্তি রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করলেন, ইমানের নিদর্শন কী? তিনি উত্তরে বললেন, তোমার ভালো কাজ যখন তোমাকে আনন্দদান করে আর তোমার মন্দ কাজ যখন তোমাকে দুঃখ দেয় তখন মনে করে নাও যে তুমি মুমিন।’ মুসনাদে আহমাদ। আল্লাহ আমাদের সবাইকে সত্যিকারের ইমানদার হওয়ার তৌফিক দান করুন।

লেখক : ইসলামবিষয়ক গবেষক।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য