শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৭:২২

রবীন্দ্রনাথ ‘ইস্যু’

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য

দীপক দেবনাথ, কলকাতা:

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথকে 'বহিরাগত' বলে সম্বোধন করে বিতর্কে রয়েছেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। বিষয়টি নিয়ে সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে অবশেষে ক্ষমা চাইলেন উপাচার্য। তবে তার দাবি তার মন্তব্যকে ভুল ব্যাখ্যা করা হয়েছে।  

গত ১৭ আগস্ট বিশ্বভারতীর পৌষ মেলা মাঠকে ঘেরার জন্য প্রাচীর তোলাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে বিশ্বভারতী চত্বর। প্রচুর বহিরাগত মানুষ সেদিন সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করে বলে অভিযোগ। এমনকি গণ্ডগোলের সময় স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ককেও বিক্ষোভকারীদের হয়ে নেতৃত্ব দিতে দেখা গিয়েছিল বলে অভিযোগ। ওই ঘটনায় সিবিআই তদন্ত ও বিশ্বভারতী ক্যাম্পাসে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন দাবি করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। 

সেসময় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছিলেন ‘বহিরাগতদের জড়ো করে পৌঁষ মেলা প্রাঙ্গণে প্রাচীর তোলার চেষ্টা করছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।’ মুখ্যমন্ত্রীর ওই প্রেক্ষিতে গত ২৩ আগস্ট উপাচার্য বলেন ‘রবীন্দ্রনাথও ‘বহিরাগত’ই ছিলেন। তিনি বোলপুরে এসে বিশ্বভারতী প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।’ 


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর