শিরোনাম
প্রকাশ : ২ মার্চ, ২০২১ ২০:২৪
প্রিন্ট করুন printer

পশ্চিমবঙ্গ-আসামে ২০টিরও বেশি র‌্যালিতে অংশ নেবেন মোদি!

কলকাতা প্রতিনিধি:

পশ্চিমবঙ্গ-আসামে ২০টিরও বেশি র‌্যালিতে অংশ নেবেন মোদি!

আসন্ন বিধানসভার নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারণায় ঝড় তুলতে চলেছে বিজেপি। আগামী ২৭ মার্চ থেকে শুরু হচ্ছে ভোট, মোট ৮ দফায় হবে এই ভোট, শেষ দফা আগামী ২৯ এপ্রিল। গণনা ২ মে। এই এক মাস ধরে গোটা বাংলা জুড়ে ২০ টি র‌্যালি (সভা)-তে অংশ নেবেন দলের শীর্ষ নেতা তথা দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

বিধানসভার নির্বাচন হচ্ছে পাশ্ববর্তী আসাম রাজ্যেও। ২৭ মার্চ, ১ এপ্রিল ৬ এপ্রিল- এই মোট তিন দফায় হবে নির্বাচন। সেখানেও মোট ৬ টি র‌্যালিতে অংশ নেবেন মোদি। 

সূত্রে খবর, এই র‌্যালিগুলিতে এমন ভাবে ঠিক করা হয়েছে যাতে প্রধানমন্ত্রী পশ্চিমবঙ্গের ২৩ টি, আসামের ৩৩ টি জেলায় গিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে পারেন। মোদিকে দিয়ে প্রচারণার জন্য বাংলা ও আসামের স্থানীয় বিজেপি নেতাদের বিপুল চাহিদার কথা মাথায় রেখে এত সংখ্যক র‌্যালির ব্যবস্থা করা হয়েছে।
 
পশ্চিমবঙ্গ, আসামের সাথেই বিধানসভার নির্বাচন হবে তামিলনাড়ু, কেরালা ও কেন্দ্রীয় শাসিত রাজ্য পুদুচেরিতেও। কিন্তু বিজেপির একমাত্র ফোকাস বংলা। বছর কয়েক আগেই দলের তৎকালীন সর্বভারতীয় সভপতি অমিত শাহ জানিয়েছিলেন বাংলা জয়ের মধ্যে দিয়েই বিজেপির গোটা ভারত জয়ের বৃত্ত সম্পর্ণূ হবে। আর ক্রমশই সেই লক্ষ্যের দিকেই এগোচ্ছে। 

গত পাঁচ বছরে রাজ্যটিতে তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে গেরুয়া শিবিরের আধিপত্য বেড়েছে। শেষবার ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনেও রাজ্যে ও ৪২ টি আসনের মধ্যে ১৮টিতে জয় পায় তারা। এখন ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান প্রতিপক্ষও এই বিজেপি। 

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর আগামী ৭ মার্চ কলকাতার ব্রিগেডে প্রথম জনসভা হতে চলেছে মোদির। ইতিমধ্যেই মোদির জনসভার প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে ব্রিগেড ময়দান পরিদর্শন করেছেন দলের অন্যতম সাধারণ সম্পাদক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, সহ-সভাপতি মুকুল রায়, রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত প্রমুখ। 

তবে মোদি ছাড়াও আগামী দুই প্রায় মাস দলের হয়ে একাধিক র‌্যালিতে অংশ নিতে দেখা যাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে.পি.নাড্ডা, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিন্যনাথ, কেন্দ্রীয় সড়ক ও জাহাজ পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গড়করি, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লদ দেব’এর মতো বিজেপি নেতাদের।  


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর