Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১০ জুলাই, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ জুলাই, ২০১৮ ২৩:২১

মনোনয়ন প্রত্যাহার শেষ, অপেক্ষা প্রতীকের

তিন সিটি নির্বাচন

প্রতিদিন ডেস্ক

মনোনয়ন প্রত্যাহার শেষ, অপেক্ষা প্রতীকের

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই প্রচারণা শুরু করেন মেয়র প্রার্থীরা। তবে আচরণবিধি লঙ্ঘনের ফাঁদ এড়াতে তারা বিভিন্ন কৌশলে চালিয়েছেন প্রচারণা। তফসিল অনুসারে, প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পরই প্রচারণায় নামতে পারবেন প্রার্থীরা। আজ প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তাই সকাল থেকেই আর কৌশল নয়, সরাসরি প্রচারণার মাঠে নামছেন দেশের শীর্ষ দুই রাজনৈতিক দলের মেয়র প্রার্থীরা। এ জন্য তারা আনুষ্ঠানিক প্রচারণা কীভাবে শুরু করবেন এ নিয়ে বিভিন্ন পরিকল্পনা করে রেখেছেন। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদকদের পাঠানো খবর—

সিলেট : সিলেট সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন ছয় প্রার্থী। তারা হলেন— সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সিরাজ খান, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের সিরাজুল ইসলাম শামীম, ২০ নম্বর ওয়ার্ডের মিঠু তালুকদার, ২১ নম্বর ওয়ার্ডের এনামুল হক, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের আফজাল উদ্দিন ও ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের খসরু আহমদ।নির্বাচন কর্মকর্তা জানান, সিসিক নির্বাচনে ৭ জন মেয়র প্রার্থী, ১২৭ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী এবং ৬২ সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এদিকে নগরীর ২০ নম্বর ওয়ার্ডে একমাত্র কাউন্সিলর প্রার্থী আজাদুর রহমান আজাদ। ফলে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। এ নিয়ে তিনি টানা চার মেয়াদে কাউন্সিলর হবেন। এদিকে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর আজ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নেতা-কর্মীদের নিয়ে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করবেন মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মেয়র প্রার্থী বদরউদ্দিন আহমদ কামরান। সেখানে মোনাজাত শেষে দরগাহ বাজার থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন তিনি। এরপর বিকালে সিলেট নগরীর মির্জাজাঙ্গাল এলাকার প্রধান নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন করবেন কামরান। এদিকে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী আজ বিকালে নগরীর কাজীটুলার মিতা সেন্টারে নিজের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন শেষে সেখানে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে মিলাদ মাহফিলে শরিক হবেন। এরপর সেখান থেকেই নামবেন প্রচারণাযুদ্ধে। এ বিষয়ে সদ্য সাবেক সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নামতে নেতা-কর্মীরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন। তাদের নিয়ে আল্লাহর কাছে সাহায্য চেয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করব।

এদিকে অন্যান্য প্রার্থীরা কে কোন প্রতীক পাবেন, তা পুরোপুরি নিশ্চিত নয়। কিন্তু আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে কামরান নৌকা প্রতীক এবং বিএনপির প্রার্থী হিসেবে আরিফ ধানের শীষ প্রতীক পাচ্ছেন। রাজশাহী : মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে চারজন কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। এর আগে শনিবার জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী ওয়াশিউর রহমান দোলন তার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেন। গতকাল নির্ধারিত সময়ের মধ্যে একজন মেয়র ও চারজন সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। এখন মেয়র পদে পাঁচজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৬৪ ও সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে ৫২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আছেন। এরপর ১ ও ২ জুলাই মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়। এতে এক মেয়র প্রার্থী ও তিন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। তবে আপিল করে স্বতন্ত্র ওই মেয়র প্রার্থী এবং দুই কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা ফিরে পান। বৈধ ছয় মেয়র প্রার্থীর মধ্যে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ওয়াশিউর রহমান দোলন নিজের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনকে সমর্থন দেন। এই নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন সদ্য বিদায়ী মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। বরিশাল : বরিশাল সিটি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন খেলাফত মজলিশের মেয়র প্রার্থী অধ্যাপক এ কে এম মাহবুব আলম। গতকাল বেলা পৌনে ১১টায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন তিনি। এ ছাড়াও সাধারণ ওয়ার্ডের ৭ কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। বরিশাল সিটিতে মেয়র পদে ৮ জন, ৩০টি সাধারণ ওয়ার্ডে ১৩৯ জন এবং ১০ সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ৭৯ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।


আপনার মন্তব্য