শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ মার্চ, ২০১৯ ২৩:১৮

তৃণমূলে স্বাস্থ্যসেবা

চিকিৎসক ও খাবার পানির সংকট

চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতাল

নেয়ামত হোসেন, চাঁদপুর

চিকিৎসক ও খাবার পানির সংকট

চাঁদপুর জেলার আট উপজেলা ও পার্শ্ববর্তী শরীয়তপুর, সখিপুর, লক্ষ্মীপুর ও রামগঞ্জ জেলার (আংশিক) মানুষ চিকিৎসা সেবার জন্য চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের ওপর নির্ভরশীল। চিকিৎসক ও খাবার পানির তীব্র সংকটে ২৫০ শয্যার এ হাসপাতালে রোগী ও স্বজনদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এখানে  চিকিৎসকের ৪৪টি পদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ১৩টি খালি। তন্মধ্যে সিনিয়র গাইনি, অর্থোসার্জারি, অ্যানেসথেসিয়া ও দুজন ইমার্জেন্সি মেডিকেল অফিসারের পদ শূন্য রয়েছে। সহকারী রেজিস্ট্রার দিয়ে কোনোভাবে চালানো হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ এই হাসপাতালটির স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবা। এ ছাড়াও জেলার আট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ইউনিয়ন উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতেও চিকিৎসক সংকট প্রকট। চিকিৎসকরা বলেন, চিকিৎসক সংকটে চিকিৎসাসেবা দিতে তারা হিমশিম খাচ্ছে। বিশেষ করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও জরুরি বিভাগসহ আউটডোর সেবায় চিকিৎসক সংকট থাকায় চিকিৎসা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। বিশুদ্ধ পানির অভাব হাসপাতালটির প্রধান সমস্যার একটি। হাসপাতালের নিজস্ব ডিপ মেশিন থাকলেও অতিরিক্ত আয়রনে তা ব্যবহার অনুপযোগী। এতে মহাদুর্ভোগে রোগী ও তাদের স্বজনরা। তত্ত্বাবধায়ক মো. আনোয়ারুল আজিম জানান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রোগ্রাম ম্যানেজার ইতিমধ্যে হাসপাতাল পরিদর্শন করে গেছেন। ভিজিট টিমের কাছে চিকিৎসক ঘাটতির তথ্য প্রদান করা হয়েছে। অচিরেই তা পূরণ করা হবে বলে আশ্বস্ত করা হয়। তিনি বলেন, পানি সংকটের বিষয়ে পৌর কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে ও আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। আশা করছি অচিরেই পানি সমস্যার সমাধান হবে। তিনি বলেন, চিকিৎসক ও পানি সংকট নিরসন হলে হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা আরও উন্নত হবে। তিনি বলেন, এ জেলার  রোগী ছাড়াও এখানে আশপাশের জেলার রোগীর চাপ অনেক।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর