শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:২৯

আবৃত্তিতে নুসরাত হত্যা ও নিপীড়নের প্রতিবাদ

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের চিত্র প্র্রদর্শনী

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের চিত্র প্র্রদর্শনী

মুজিবনগর দিবসটি এ দেশের মানুষের কাছে তাৎপর্যপূর্ণ। ঐতিহাসিক এই দিনটিতে ‘শিল্পের আলোয় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ’ শিরোনামে শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে শিল্পকলা একাডেমি। গ্রানাইট পাথরে খোদাইকৃত এই শিল্পকর্মের মাধ্যমে শিল্পী জাহানারা পারভীন বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে সম্পূর্ণভাবে নান্দনিকভাবে তুলে ধরেছেন। শিল্পকলা একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে দেয়ালে স্থাপন করা এই শিল্পকর্মটিতে জাহানারা পারভীন  শৈল্পিকভাবে তুলে এনেছেন বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের সম্পূর্ণ ভাষণটি। বিশাল দেয়ালের মধ্যভাগের ওপরের অংশজুড়ে পুরো ভাষণ। সেই সঙ্গে রয়েছে পাথরে খোদাইকৃত বঙ্গবন্ধু, উত্তাল ৭ মার্চের জনস্রোতের একাংশ ও মুক্তিযুদ্ধের খি ত চিত্র। এছাড়া শিল্পকর্মটির দেয়ালের একপাশে রয়েছে সৈয়দ শামসুল হকের কবিতা ‘আমার পরিচয়’ ও অন্যপ্রান্তে খুদিত রয়েছে শামসুর রাহমানের ‘স্বাধীনতা তুমি’ কবিতাটি। শিল্পকর্মের দেয়ালজুড়ে যেন বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুই মূর্ত হয়েছে।  শিল্পকর্মের দেয়াল থেকে পর্দা অবমুক্ত করার মধ্য দিয়ে গতকাল বিকালে ‘শিল্পের আলোয় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ’ শিরোনামের এই প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এ সময় নেপথ্যে বাজতে থাকা বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের সঙ্গে স্বরচিত কবিতা ‘স্বাধীনতা, এই শব্দটি কীভাবে আমাদের হলো’ পাঠ করেন নির্মলেন্দু গুণ। এরপর সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা’ শীর্ষক আলোচনায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে এতে আলোচক ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক। এদিকে গতকাল বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে নুসরাত হত্যার প্রতিবাদ ও যৌন নিপীড়ন বিরোধী আবৃত্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

শিল্পকলায় ‘ফিয়ারলেস’ : বিশেষভাবে পারঙ্গম বা প্রতিবন্ধীদের মাঝেও রয়েছে লুকায়িত প্রতিভা। আর এ বিষয়টি তুলে ধরতে তথা বিশেষভাবে পারঙ্গম প্রতিবন্ধীদের নাট্য প্রতিভার জানান দিতে ভিন্নধর্মী গল্পের ‘ফিয়ারলেস’ নামের নাটক মঞ্চায়ন করেছে নাটকের শীর্ষস্থানীয় দল ঢাকা থিয়েটার।

নাটকটিতে অভিনয়শৈলীর দক্ষতায় তিনজন প্রতিবন্ধী নিজেদের শিল্পের দ্যুতি ছড়িয়ে দিয়েছেন শিল্পকলা একাডেমিতে আগত শিল্পানুুরাগী নাট্য দর্শকদের মাঝে। গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হয় দলের ৪৮তম প্রযোজনার এই নাটকটি। রুমা মোদকের রচনায় নাটকটির নির্দেশনায় ছিলেন সামিউন জাহান দোলা। অভিনয় করেছেন লাভলী খাতুন, হাওয়া আক্তার ও রাব্বী মিয়া নামের তিন প্রতিবন্ধী। নাটকটির মঞ্চ ও আলোক পরিকল্পনায় ছিলেন ওয়াসিম আহমেদ, আবহসংগীতে ছিলেন সৌজন্য অধিকারী, নেপথ্য কণ্ঠে ছিলেন শিমুল ইউসুফ।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর