শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৪৯

বাংলাদেশ প্রতিদিনে রিপোর্ট

মানহীন সেই চারটি বই কেনার সিদ্ধান্ত বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

সেই দুই অখ্যাত লেখকের চারটি বই কেনার সিদ্ধান্ত বাতিল হয়েছে। এ বিষয়ে পেছনের তারিখ দিয়ে গতকাল একটি চিঠি জারি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। বাংলাদেশ প্রতিদিন ২১ সেপ্টেম্বর ‘দুই লেখকের চার বই নিয়ে তোলপাড় : অখ্যাত লেখিকার বই নিয়ে প্রাথমিক শিক্ষায় বাণিজ্য’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশের পর অধিদফতর এই চিঠি দেয়। কিন্তু ইতিমধ্যে যেসব প্রতিষ্ঠান কোটি টাকার বই কিনে ফেলেছে তার কী হবে- সে বিষয়ে চিঠিতে কিছুই বলা হয়নি। গত ১১ সেপ্টেম্বরের তারিখ দিয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের যুগ্মসচিব পরিচালক (পলিসি ও অপারেশন) খান মো. নুরুল আমিন স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ইতিপূর্বে ৭ জুলাই তারিখে দেওয়া চিঠি অনুযায়ী কবি কুমার সুশান্তের লেখা ‘অসাম্প্রদায়িক বঙ্গবন্ধু সাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ’ ও মৌসুমি মৌ রচিত তিনটি ছড়াগ্রন্থ ক্রয়পূর্বক সংরক্ষণের যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল তার কার্যকারিতা বাতিল করা হলো। গত বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মনজুর কাদেরের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি ওই দিন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেছিলেন, তিনি বিষয়টি অবগত হয়েছেন এবং এ-সংক্রান্ত নথি তলব করেছেন। সবকিছু দেখে বই কেনার ওই নির্দেশনা বাতিল করবেন বলেও সেদিন জানিয়েছিলেন ডিজি। অথচ বাতিলের চিঠি ইস্যু করা হয়েছে পেছনের তারিখ দিয়ে! বাংলাদেশ প্রতিদিনে প্রকাশিত রিপোর্টে বলা হয়েছিল, অখ্যাত লেখক কুমার সুশান্তের বই ‘অসাম্প্রদায়িক বঙ্গবন্ধু সাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ’ এবং কবি মৌসুমি মৌর লেখা তিনটি ছড়াগ্রন্থ ‘জাগরণ আসবেই’, ‘রামছাগলের পাঠশালা’ এবং ‘বাংলা ছেড়ে ভাগ’ নিয়মনীতি উপেক্ষা করে কেনা হয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের নির্দেশে ওই বইগুলো সরকারি টাকায় কিনে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার দফতরে সংরক্ষণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র জানায়, অধিদফতরের নির্দেশ পাওয়ার পর গত কয়েক মাসে ওই দুই অখ্যাত লেখকের মানহীন বইগুলো দ্রুত ছাপিয়ে সরবরাহ করা হয়। প্রতিটি বই প্রায় ৫০ হাজার কপি করে ছাপানো হয়। চারটি বইয়ের মোট ২ লাখ কপি সরবরাহ করা হয়েছে; যার মূল্য ৭ থেকে ৮ কোটি টাকা।


আপনার মন্তব্য