শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:৪৯

খোঁজ মেলেনি সাংবাদিক কাজলের, সর্বশেষ ফোন লোকেশন বেনাপোল

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফটোসাংবাদিক ও ‘পক্ষকাল’ ম্যাগাজিনের সম্পাদক শফিকুল ইসলাম কাজল ৪০ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজের পর থেকে তার ব্যবহৃত ফোন নম্বরটিও বন্ধ রয়েছে। ১০ মার্চ তিনি নিখোঁজ হন। তদন্ত সূত্রে জানা যায়, ৯ এপ্রিল সাংবাদিক কাজলের ফোন নম্বরটি চালু হয়েছিল যশোরের বেনাপোলে। ওই দিনই ফোন নম্বরটি বন্ধ হয়ে কেটে গেছে আরও ১০ দিন। এরপর তদন্তে আর কোনো অগ্রগতি নেই। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) চকবাজার থানার এসআই মুন্সী আবদুল লোকমান জানান, সপ্তাহখানেক আগে নিখোঁজ সাংবাদিক কাজলের ফোন নম্বরটি চালু হয়েছিল। লোকেশন দেখিয়েছে যশোরের বেনাপোল। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবং নম্বরটি চালু থাকার সময় কম হওয়ায় বেনাপোলে কোনো অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। চকবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদার বলেন, ‘আমরা ভিডিও ফুটেজ ও কললিস্ট দেখেছি। সর্বশেষ ৯ এপ্রিল বেনাপোলে ফোন ও সিম একসঙ্গে চালু হয়েছিল। এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে আর ভালো কোনো আপডেট নেই। আমরা গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।’

সাংবাদিক কাজলের ছেলে মনোরম পলক বলেন, ‘আমাদের একটাই চাওয়া, বাবাকে সুস্থভাবে আমাদের মধ্যে ফেরত চাই। আমরা তার জন্য অপেক্ষা করছি।’

প্রসঙ্গত, সাংবাদিক কাজল ১০ মার্চ সন্ধ্যায় ‘পক্ষকাল’ ম্যাগাজিনে অফিস থেকে বের হন। এরপর থেকে কোনো সন্ধান না পেয়ে ১১ মার্চ চকবাজার থানায় জিডি করেন সাংবাদিক কাজলের স্ত্রী জুলিয়া ফেরদৌসি নয়ন। ১৩ মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিক কাজলকে সুস্থ অবস্থায় ফেরত দেওয়ার দাবি জানায় পরিবার। সন্ধান না পেয়ে ১৮ মার্চ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে সাংবাদিক কাজলের সন্ধান চাওয়া হয়। ওই দিনই সাংবাদিক কাজলকে অপহরণ করা হয়েছে অভিযোগ এনে চকবাজার থানায় মামলা করেন তার ছেলে মনোরম পলক। মামলার এজাহারে বলা হয়, ‘পক্ষকাল অফিসের আশপাশের সিসিটিভি ফুটেজ পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায়, আমার বাবা তার অফিস থেকে ১০ মার্চ সন্ধ্যা ৬টা ৪৮ মিনিটে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হন। এরপর থেকে তার আর কোনো সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে না। আমার বাবা ফেসবুকে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে লেখালেখি করার কারণে ১০ মার্চ আড়াইটা থেকে যে কোনো সময় বকশীবাজারে বাসার সামনে থেকে বা হাতিরপুলে অফিসের সামনে থেকে অজ্ঞাতনামা আসামিদের দ্বারা অপহৃত হন।’

সাংবাদিক কাজল নিখোঁজ হওয়ার পর তার সন্ধানের দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে কয়েক দফা কর্মসূচি পালন করেছেন সাংবাদিক, সহকর্মী ও পরিবারের সদস্যরা। ১৪ মার্চ সাংবাদিক কাজলকে খুঁজে বের করতে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে নিউইয়র্কভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ। সাংবাদিক নিখোঁজের ঘটনায় ২১ মার্চ এবং ১ এপ্রিল দুই দফায় উদ্বেগ জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর