শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩২

ব র্ব র তা

পটুয়াখালীতে যুবককে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

পটুয়াখালী প্রতিনিধি

পটুয়াখালীতে যুবককে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল
পটুয়াখালীতে যুবককে দড়ি দিয়ে বেঁধে মারধর করা হয়

পটুয়াখালীর মহিপুরে এক যুবককে অপহরণের পর গাছে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের দুই দিন অতিবাহিত হলেও অপহৃত ওই যুবককে উদ্ধার কিংবা অভিযুক্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। অপহৃত রায়হান আহমেদ (২২) মহিপুর গ্রামের আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে। ভিডিওটিতে দেখা গেছে, রায়হানকে দুই যুবক বেঁধে বাঁশ ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আহত করছে। আরও দুই যুবক সাহায্য করছে। একজনকে বলতে শোনা যাচ্ছে তুই এখানে ১ বছর ১ মাস মানে ১৩ মাস এভাবে থাকবি। অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করতেও শোনা যায়। পুলিশ ও রায়হানের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে বরগুনার তালতলির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় রায়হান। এ সময় তার সঙ্গে ১ লাখ টাকা, মোটরসাইকেল এবং একটি মোবাইল ফোন ছিল বলে দাবি পরিবারের। পরে সন্ধ্যায় তার স্ত্রী ফোন করে অবস্থান জানতে চাইলে মোবাইলের অপরপ্রান্ত থেকে ধস্তাধস্তির শব্দ শুনতে পান স্ত্রী। এ সময় সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ফোনটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি পরিবার। রাতে স্থানীয় শাহজাহান শিকদারের মাধ্যমে তার পিতা আবুল কাশেম ফেসবুকে একটি ভিডিও দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে অবহিত করেন এবং রাতেই তিনি বাদী হয়ে ইমাম সিকদার, মশিউর, ইমরান ও বিপ্লব শীলসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনের নামে মহিপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে মহিপুর থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, আমরা চেষ্টা করছি ওই ছেলেটিকে উদ্ধার করতে। আর ভিডিও ফুটেজে যাদের ছবি দেখা গেছে তাদের আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছি।