শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মে, ২০২১ ২৩:৩১

করোনায় মৃত্যুতে ঢাকা শীর্ষে, পরেই চট্টগ্রাম

২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৫১৪, মৃত্যু ৩৮

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় মৃত্যুতে ঢাকা শীর্ষে, পরেই চট্টগ্রাম
Google News

করোনাভাইরাসে ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এরপরই রয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগ। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, মহামারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৯৭২। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৩৮ জন। সূত্র জানায়, দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৭৫ হাজার ২৭। ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ১ হাজার ৫১৪ জনের দেহে। পাশাপাশি গতকাল ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১১৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ১২ হাজার ২৭৭ জন। প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, করোনাভাইরাসে ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এই বিভাগে মোট ৬ হাজার ৯৩৭ জন মারা গেছেন। শতকরা মৃত্যুর হার ৫৭.৯৪ শতাংশ। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৫ জন। অন্যদিকে চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজার ২২০ জন। শতকরা মৃত্যুর হার ১৮.৫৪ শতাংশ। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় ১১ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া রাজশাহী বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ৬ জন মারা গেছেন। মোট মৃত্যু হয়েছে ৬২৯ জনের। শতকরা মৃত্যুর হার ৫.২৫ শতাংশ। খুলনায় গতকাল ২৪ ঘণ্টায় কেউ মারা যায়নি। এই বিভাগে মোট মৃত্যু ৭২৫। শতকরা মৃত্যুর হার ৬.০৬ শতাংশ। বরিশাল বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ২ জন এবং এ পর্যন্ত মোট মারা গেছেন ৩৬৪ জন। মোট মৃত্যুর হার ৩.০৪ শতাংশ। সিলেটে মোট মারা গেছেন ৪১৫ জন। শতকরা মৃত্যুর হার ৩.৪৭ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন তিনজন। অন্যদিকে রংপুর বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় একজন এবং মোট ৪৩৫ জন মারা গেছেন। মৃত্যুর হার ৩.৬৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ময়মনসিংহ বিভাগে কেউ করোনায় মারা যাননি। এই বিভাগে মোট মৃত্যু ২৪৭ জন। দেশের আট বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে কম মৃত্যু হয়েছে এই বিভাগে। মৃত্যুর হার ২.০৬ শতাংশ।

এদিকে ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৩৮ জনের মধ্যে পুরুষ ২৫ এবং নারী ১৩ জন। মোট ৮ হাজার ৬৭৮ জন পুরুষ করোনায় মারা গেছেন। আর নারী মারা গিয়েছেন ৩ হাজার ২৯৪ জন। পুরুষ মৃত্যুর হার ৭২. ৪৯ শতাংশ। আর নারী মৃত্যুর হার ২৭.৫১ শতাংশ। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কভিড-১৯। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, আক্রান্তের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। বাংলাদেশে গত বছরের মার্চে প্রথম করোনা শনাক্ত হয়।