শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ জুন, ২০২১ ২৩:৫০

চাঁদাবাজি ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে গ্রেফতার ৩

সাভার প্রতিনিধি

Google News

সাভারের আশুলিয়ার বাইপাইল এলাকায় ট্রাক-পিকআপে চাঁদাবাজি করতে বাধা দেওয়ায় পুলিশ সদস্যের ওপর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটলেও গতকাল সকালে বিষয়টি জানান আশুলিয়া থানার উপরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়া থানা সংলগ্ন বাইপাইল  এলাকার ট্রাক স্ট্যান্ডের সামনে কিছু চাঁদাবাজ-সন্ত্রাসী  বিভিন্ন  ট্রাক-পিকআপ থেকে চাঁদা আদায় করছিল। এ কারণে যানচলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছিল। খবর পেয়ে এসআই হারুন অর রশিদ ও কনস্টেবল আসাদুর রহমান ঘটনাস্থলে যান এবং যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করেন। এ সময় ২০ থেকে ৩০ জন তাদের ঘিরে ফেলে। পরে বেতার যন্ত্রের মাধ্যমে থানায় খবর দিলে অতিরিক্ত পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার ও তিনজনকে আটক করতে সক্ষম হন। আটকরা হলো- সাভারের আশুলিয়ার কাইচাবাড়ির কালারটেক এলাকার মামুন (৪০), টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার দরিহাতি গ্রামের রাজ্জাক মিয়া (৩৮) ও সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর থানার কান্দাপাড়া গ্রামের আলমগীর হোসেন (৩৯)। পলাতক আসামিরা হলো- আশুলিয়ার বাইপাইল পূর্বপাড়া (মন্ডলপাড়া) এলাকার বাদশা মন্ডল (৪২), বাইপাইলের মেহেদী (৪০), টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার জলছত্র গ্রামের হৃদয় (৩৫), আশুলিয়ার ইউনিক এলাকার সেলিম (৩৫), জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ থানার সুজন (৩২) ও আশুলিয়ার গাজিরচট এলাকার আনোয়ার হোসেন (৩৫)। তারা সবাই বাদশা মন্ডলের অধীনে পরিবহনে চাঁদাবাজি করে আসছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ জানান, এই চাঁদাবাজ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে বাস, ট্রাক ও পিকআপ থেকে ১০০ টাকা করে চাঁদা আদায় করে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।