Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০১৯ ১০:২১

৪০ হাজার বছর পরেও যেন জীবন্ত!

অনলাইন ডেস্ক

৪০ হাজার বছর পরেও যেন জীবন্ত!
সংগৃহীত ছবি

আজকের যুগের নেকড়ের থেকে চেহারায় প্রায় ২৫ শতাংশ বড়। এক একটা দাঁত প্রায় ১৬ ইঞ্চি লম্বা। প্রায় ৪০ হাজার বছর আগে এধরনের অতিকায় নেকড়ে ঘুরে বেড়াত রাশিয়ার বরফেমোড়া সাইবেরিয়ায়। 

সম্প্রতি এমনই এক নেকড়ের মাথা পাওয়া গেছে সাইবেরিয়ার ইয়াকুতিয়া প্রদেশের তাইরেখতিয়াখ নদীর কাছে। প্রাণীবিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বরফে চাপা পড়ে ছিল বলে নেকড়ের মাথাটি এখনও অবিকৃত রয়েছে। লোম, দাঁত, জিভ, নেকড়ের শরীরের প্রায় সব প্রত্যঙ্গই অক্ষত। ফলে নেকড়েমুণ্ড নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা চালাতে অসুবিধা হচ্ছে না গবেষকদের। 

তারা জানিয়েছেন, প্লিইস্টোসিন যুগে এই ধরনের অতিকায় লোমশ প্রাণী পাওয়া যেত। তবে প্রাণীটি নেকড়ের কোন প্রজাতির তা এখনও জানা যায়নি। সেটি পুরুষ না স্ত্রী, তাও এখনও বলেননি বিজ্ঞানীরা। 

ইয়াকুতিয়া অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্সের ফনা ম্যামথ স্টাডিজের প্রধান আলবার্ট প্রোটোপোপোভ জানিয়েছেন, এই ধরনের জীবাশ্ম আগে কখনও মেলেনি। আগে যেসব জীবাশ্ম পাওয়া গিয়েছিল, সেগুলো মূলত নেকড়েশাবকদের। পূর্ণবয়স্ক নেকড়ের দেহের অংশ এই প্রথম পাওয়া গেল। 

প্রোটোপোপোভ আরও নিয়েছেন, মাথাটি নিয়ে রাশিয়া, সুইডেন ও জাপানের বিজ্ঞানীরা একসঙ্গে কাজ করছেন। অবশ্য 'গেম অফ থ্রোনস' টিভি সিরিজের কল্যাণে এমন ধরনের নেকড়ের সঙ্গে অনেক আগেই পরিচিত হয়ে গেছেন।    

 

বিডি-প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য