শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ মে, ২০২০ ১৫:১৩
আপডেট : ২৯ মে, ২০২০ ১৮:৪৯

নিউইয়র্কে করোনায় বেকারদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র:

নিউইয়র্কে করোনায় বেকারদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ
সংগৃহীত ছবি

করোনা মহামারিতে বেকার হওয়া লোকজনের বাড়ি ভাড়া মওকুফের একটি বিল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পাশ হয়েছে নিউইয়র্ক স্টেট পার্লামেন্টে। 

‘দ্য ইমার্জেন্সি রেন্ট রিলিফ এ্যাক্ট অফ ২০২০’ নামক বিলটি আইনে পরিণত হলে গত এপ্রিল থেকে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত ৪ মাসের ভাড়া দিতে হবে না আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত লোকজনকে। এসব বাসার মালিকরা স্টেট প্রশাসনে ভাউচার সাবমিট করে ভাড়ার অর্থ আদায় করবেন। বিলটি শিগগিরই স্টেট গভর্ণর এ্যান্ড্রু ক্যুমো সমীপে পেশ করা হবে অনুমোদনের জন্য। তারপরই তা আইনে পরিণত হবে। 

উল্লেখ্য, গত মার্চে কংগ্রেসে ২ ট্রিলিয়ন ডলারের করোনা স্টিমুলাস প্যাকেজ (কেয়ারস এ্যাক্ট) পাশের পর ঐ তহবিল থেকে পাওয়া অর্থ থেকেই নিউইয়র্ক স্টেট স্বল্প আয়ের লোকজনের বাড়ি ভাড়া বাবদ ১০০ মিলিয়ন ডলার বরাদ্দ করেছে।  

বিল পাশের পর স্টেট সিনেটে হাউজিং কমিটির চেয়ারম্যান (ডেমক্র্যাট-ম্যানহাটান) সিনেটর ব্রায়ান কাভানাহ বলেন, করোনার কারণে স্বল্প আয়ের লোকজনের যে সংকট তৈরী হয়েছে তা অবসানে এ নিয়ে বেশ কটি বিল পাশ হলো। এর ফলে বাড়ির মালিকেরও স্বার্থ সংরক্ষিত হবে। তবে, জনসাধারণের দুর্দশা এখনও কমেনি। আরো অনেক কিছু করতে হবে। 

এই বিল উত্থাপনকারিদের অন্যতম স্টেট এ্যাসেম্বলীম্যান  (ডেমক্র্যাট-ব্রুকলীন) স্টিভেন সিমব্রয়েজ বলেন, বাড়ি ভাড়া মওকুফের সুযোগ তারাই পাবেন যারা মাসিক আয়ের ৩০ ভাগের অধিক বাড়ি ভাড়া বাবদ ব্যয় করেন এবং করোনার শুরু থেকেই বেকার হয়ে পড়েছেন। ৩ সদস্যের পরিবারের প্রধান হিসেবে বার্ষিক আয় যাদের ৮১৯২০ ডলার তারা এ সুবিধা পাবেন। 

এর ফলে নিউইয়র্ক সিটির বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশীও বড় ধরনের একটি সংকট থেকে রেহাই পাবেন বলে মনে করা হচ্ছে। স্মরণ করা যেতে পারে, করোনার প্রকোপ শুরুর কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই অর্থাৎ মার্চের শেষে স্টেট গভর্ণর একটি নির্দেশ জারি করেছেন যে, বিপদগ্রস্ত ভাড়াটেকে বকেয়া ভাড়ার জন্যে উচ্ছেদ করা যাবে না। সেই নির্দেশ বহাল রয়েছে ২০ আগস্ট পর্যন্ত। এরই মধ্যে পাশ হল এই বিল। 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর