শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৪৭

হাসানের সোনালি অভিষেক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

হাসানের সোনালি অভিষেক

এক বছরের নিষেধাজ্ঞা শেষে ক্রিকেটে রাজার মতো ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। তার ফেরার দিনে আরেক টাইগার ক্রিকেটার হাসান মাহমুদের সোনালি অভিষেক হয়েছে। ২১ বছর বয়স্ক ডান হাতি পেসার হাসান গতির ঝড় তুলে ধ্বংসযজ্ঞে মেতেছিলেন মিরপুরের ২২ গজের উইকেটে। মুস্তাফিজ ও রুবেলের মতো দুই অভিজ্ঞ পেসার থাকার পরও ৬ ওভারের স্পেলে ২৬ রানের খরচে ৩ উইকেট তুলে আলাদা করে জাত চিনিয়েছেন নিজের।

লাল সবুজ পতাকার হয়ে হাসান গতকালই প্রথম খেলেননি। গত মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-২০ ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক ডান হাতির এই দ্রুতগতির বোলারের। আলো ছড়াতে পারেননি তখন। তারপরও টিম ম্যানেজমেন্ট আস্থা রেখেছেন তরুণ পেসারের উপর। অবশ্য না রাখার কোনো কারণও নেই। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের জন্য পাঁচ মাসের উপর ঘরবন্দী ছিলেন ক্রিকেটাররা। তবে ক্রিকেটাররা ক্রিকেটে ফিরেন দুই দুটি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট দিয়ে। টুর্নামেন্ট দুটিতে দুর্দান্ত বোলিং করেন হাসান। তার পারফরম্যান্সে আস্থা রাখেন টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশেষ করে কোচ রাসেল ডমিঙ্গো ও পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন মুগ্ধ হন হাসানের বোলিংয়ে। তাই মুস্তাফিজ, রুবেল, তাসকিন, আল আমিনরা থাকার পরও ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে স্কোয়াডে রাখেন।

শুধু তাই নয়, গতকাল ১৩৪ নম্বর ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক হয়। অভিষেক ম্যাচে প্রথম পরিবর্তিত বোলার হিসেবে বোলিং করেন। প্রথম স্পেলে ৩ ওভারে ১৪ রান দিয়ে ছিলেন উইকেট শূন্য। দ্বিতীয় স্পেলে বোলিংয়ে আসেন ক্যারিবীয় ইনিংসের ২৮ নম্বর ওভারে। ততোক্ষণে ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৫৯ রান যোগ করে বড় কিছু স্বপ্ন দেখাচ্ছেন রভম্যান পাওয়েল ও কাইলি মায়ার্স। তখনই আঘাত হানেন হাসান। পরপর দুই বলে পাওয়েল ও রেমন রেইফারকে সাজঘরে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিকের আশা জাগিয়ে তুলেন। কিন্তু জোশেফ আলঝারি হ্যাটট্রিক বলটি ঠেকিয়ে দিলে ইতিহাস গড়া হয়নি হাসানের। তারপরও অভিষেক ম্যাচে ৬ ওভারের স্পেলে ৩ উইকেট নিয়ে নিজের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল করেছেন হাসান মাহমুদ।


আপনার মন্তব্য