মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা

টোকিওতে ব্যতিক্রমী অলিম্পিক

ক্রীড়া ডেস্ক

টোকিওতে ব্যতিক্রমী অলিম্পিক

ইউরো কাপ ও কোপা আমেরিকা শেষ হতে না হতেই দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে বিশ্বের সেরা ক্রীড়াযজ্ঞ। আগামী শুক্রবার জাপানের রাজধানী টোকিওতে শুরু হবে অলিম্পিক গেমসের ৩২তম আসর। সারা পৃথিবী থেকে এরই মধ্যে ক্রীড়াবিদরা জড়ো হয়েছেন অলিম্পিক ভিলেজে। করোনাভাইরাসের ভয়-ভীতি কাটিয়ে নির্ধারিত সময়ের এক বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ব্যতিক্রমী এক অলিম্পিক।

টোকিওতে গত বছরই অলিম্পিক গেমস অনুষ্ঠানের কথা ছিল। তবে করোনাভাইরাসের কারণে সূচি বদলে যায়। বদলে গেছে অনেক নিয়ম কানুনও। এখন ইচ্ছে করলেই আর ক্রীড়াবিদরা পরস্পরের সঙ্গে খোলামেলা মিশতে পারছেন না। অনেক কড়া নিয়মের মধ্য দিয়ে অংশগ্রহণ করতে হবে খেলায়। বিজয়ী অ্যাথলেটদের পদক নিজেদেরকেই গলায় ঝুলাতে হবে। এমনই আরও অনেক নিয়ম-নীতির বেড়াজালে আবদ্ধ থাকতে হবে সবাইকে। ব্যতিক্রমী এই অলিম্পিকে ৩৩টি ক্রীড়ায় ৩৩৯টি ইভেন্টে ১১ হাজারেরও বেশি অ্যাথলেটের অংশ নেওয়ার কথা রয়েছে। অবশ্য নানা কারণে অনেক অ্যাথলেট এরই মধ্যে অলিম্পিক থেকে নিজেদেরকে সরিয়ে নিয়েছেন।

টোকিও অলিম্পিকে গ্যালারিতে দর্শক থাকবেন না। তবে টিভির পর্দায় কোটি কোটি ক্রীড়াপ্রেমী উসাইন বোল্ট আর মাইকেল ফেলপসের মতো তারকাদের মিস করবেন। গত তিনটি অলিম্পিকে এ দুজন তারকার দিকে দৃষ্টি ছিল ক্রীড়াপ্রেমীদের। অবশ্য অলিম্পিকের মতো আসরে তারকা খুঁজে নিতে দেরি হবে না। নতুন নতুন তারকার দেখা মিলবে টোকিও অলিম্পিকে। সম্ভবত এ কারণেই ব্যতিক্রমী এ অলিম্পিককে ইতিহাসের সেরা বলে অভিহিত করেছেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রধান থমাস বাখ!