৬ নভেম্বর, ২০২২ ০৮:০২

লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে বার্সেলোনা

অনলাইন ডেস্ক

লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে বার্সেলোনা

সংগৃহীত ছবি

প্রথমার্ধে বার্সেলোনার সুযোগ নষ্ট হলো অনেক। বিরতির পর অবশ্য ১৪ মিনিটের মধ্যে জালের দেখা মিলল দুইবার। আলমেরিয়াকে হারিয়ে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠল শাভি এরনান্দেসের দল।

৯২ হাজার ৬০৫ জন দর্শকে ঠাসা কাম্প নউয়ে জেরার্দ পিকের বিদায়ী ম্যাচের উপলক্ষ রাঙালেন তার সতীর্থরা। শনিবার (৫ নভেম্বর) রাতে ঘরের মাঠে লিগ ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতল কাতালান দলটি।

উসমান দেম্বেলে চমৎকার গোলে দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর ব্যবধান বাড়ান ফ্রেংকি ডি ইয়ং। ১৩ ম্যাচে ১১ জয় ও এক ড্রয়ে বার্সেলোনার পয়েন্ট ৩৪। এক ম্যাচ কম খেলে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেমে গেছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ।

শুরু থেকে বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য করে বার্সেলোনা। প্রথমার্ধে গোলের জন্য তারা ১৬টি শট নিয়ে ৬টি লক্ষ্যে রাখতে পারলেও কোনোটি জাল খুঁজে পায়নি। শুরুতেই সুবর্ণ সুযোগ হারান রবের্ত লেভানদোভস্কি। পঞ্চম মিনিটে ডি-বক্সে ফেররান তরেসের হেডে আলেমেরিয়ার একজনের হাতে বল লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু পোলিশ তারকার দুর্বল শট লাগে পোস্টে।

বার্সেলোনার জার্সিতে নিজের প্রথম পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হলেন সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ স্ট্রাইকার। ২৫তম মিনিটে আরেকটি ভালো সুযোগ পায় বার্সেলোনা। এবার তরেসের শট ঠেকান গোলরক্ষক ফের্নান্দো মার্তিনেস। চার মিনিট পর ডি ইয়ংয়ের আলগা বলে দারুণ সুযোগ পেয়ে যান আলমেরিয়ার রামাজানি। ওয়ান-অন-ওয়ানে এই বেলজিয়ান ফরোয়ার্ডের শট এগিয়ে এসে রুখে দেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন।

দুই মিনিট পর তরেসের আরেকটি প্রচেষ্টা গোলরক্ষককে পরাস্ত করলেও গোললাইন থেকে বল ক্লিয়ার করেন এক ডিফেন্ডার। ৪০তম মিনিটে এই স্প্যানিশ ফরোয়ার্ডের সামনে সুযোগ আসে আরেকটি। বক্সে ঢুকে শট না নিয়ে তিনি বল দেন পাশে থাকা দেম্বেলেকে। ফরাসি ফরোয়ার্ডের শট ঠেকিয়ে দেন মার্তিনেস। বিরতির আগে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন ডি ইয়ং।

অবশেষে দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটে সফল হয় বার্সেলোনা। নিজেদের অর্ধ থেকে সের্হিও বুসকেতস লম্বা করে বল বাড়ান ডান দিকে। বল ধরে বক্সে ঢুকে প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের বাধা এড়িয়ে বাঁ পায়ের শটে দূরের পোস্ট দিয়ে ঠিকানা খুঁজে নেন দেম্বেলে।

৬২তম মিনিটে দ্বিগুণ হয় ব্যবধান। আগের মিনিটে তরেসের বদলি নামা আনসু ফাতির ভলি শুরুতে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। ফিরতি বল জালে পাঠান ডাচ মিডফিল্ডার ডি ইয়ং।
তিন মিনিট পর পেদ্রির শট আরেকটি দুর্দান্ত সেভ করে ব্যবধান বাড়তে দেননি মার্তিনেস।

নির্ধারিত সময়ের সাত মিনিট বাকি থাকতে পিকেকে তুলে নেন শাভি। তৈরি হয় আবেগঘন মুহূর্তের। স্প্যানিশ ডিফেন্ডার কান্নাভেজা চোখে প্রায় সব সতীর্থকে এক এক করে আলিঙ্গনে বাঁধার পর মাঠ ছাড়েন। দর্শকরা দাঁড়িয়ে অভিবাদন জানান তাকে।

ম্যাচের পর পিকেকে শূন্যে ছুঁড়ে উদযাপন করে তার সতীর্থরা। দর্শক অভিবাদনের জবাব দেন ৩৫ বছর বয়সী ফুটবলার। বড় পর্দায় দেখানো হয় বার্সেলোনার জার্সিতে পিকের বিভিন্ন স্মরণীয় মুহূর্তের ভিডিও চিত্র। আচমকায়ই গত বৃহস্পতিবার ফুটবল থেকে অসবরের ঘোষণা দেন পিকে।

কাতার বিশ্বকাপের বিরতির আগে আগামী মঙ্গলবার ওসাসুনার মাঠে খেলবে বার্সেলোনা। সেই ম্যাচে বার্সেলোনার জার্সিতে শেষবার মাঠে নামবেন দলটির হয়ে ১৪ বছরে ৬১৬ ম্যাচ খেলা ও ৩০টি শিরোপা জেতা পিকে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর