২৩ জানুয়ারি, ২০২৩ ০৯:০৬

বেনজেমা-ক্রুস নৈপুণ্যে রিয়ালের জয়

অনলাইন ডেস্ক

বেনজেমা-ক্রুস নৈপুণ্যে রিয়ালের জয়

সংগৃহীত ছবি

পরিষ্কার সুযোগ খুব বেশি তৈরি করতে পারল না কোনো দল। এর মাঝেই চমৎকার একটি গোল উপহার দিলেন করিম বেনজেমা। শেষ দিকে বদলি নেমে নজরকাড়া গোল করলেন টনি ক্রুসও। 

আথলেতিক বিলবাওকে তাদের মাঠে হারিয়ে লিগ টেবিলে বার্সেলোনার সঙ্গে ব্যবধান কমাল রিয়াল মাদ্রিদ। সান মামেসে রবিবার (২২ জানুয়ারি) রাতে লা লিগার ম্যাচটি ২-০ গোলে জিতেছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

বিশ্বকাপ বিরতির পর থেকে অধারাবাহিক পারফরম্যান্সে প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছিল রিয়াল। বিলবাওয়ের বিপক্ষে এই ম্যাচের আগে সবশেষ চার ম্যাচে পেনাল্টি শুটআউট বাদে তাদের জয় ছিল একটি। অবশেষে চেনা ছন্দে ফেরার আভাস দিল দলটি।

এক ম্যাচ পর লিগে জয়ের স্বাদ পেল শিরোপাধারীরা। গত রাউন্ডে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে হেরেছিল ২-১ গোলে। বিলবাওয়ের বিপক্ষে লা লিগায় এই নিয়ে টানা ১৫ ম্যাচে অপরাজিত রইল রিয়াল, এর মধ্যে সবশেষ ছয়টিসহ জয় ১১ ম্যাচে।

আক্রমণ পাল্টা-আক্রমণে শুরু থেকে জমে ওঠা ম্যাচে সপ্তম মিনিটে একটি হাফ চান্স পান বেনজেমা। তবে তার শট লক্ষ্যে থাকেনি। তিন মিনিট পর বিলবাওয়ের আইতর পারেদেসের হেড ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন থিবো কোর্তোয়া। ২২তম মিনিটে আরেকটি সুযোগ পায় বিলবাও। দুরূহ কোণ থেকে ইনাকি উইলিয়ামসের প্রচেষ্টা পাশের জালে লাগে।

দুই মিনিট পরই বেনজেমার দুর্দান্ত গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। দানি সেবাইয়োসের ক্রসে ডি-বক্সে মার্কো আসেনসিওর হেড পাসে শূন্যে থাকা বল বাঁ পায়ের জোরাল ভলিতে জালে পাঠান ৩৫ বছর বয়সী স্ট্রাইকার।

লা লিগায় সবচেয়ে বেশি গোলের তালিকায় আলফ্রেদো দি স্তেফানোকে (২২৭) ছাড়িয়ে পাঁচ নম্বরে রাউলের পাশে বসলেন বেনজেমা, দুইজনেরই গোল ২২৮টি করে। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে স্পেনের শীর্ষ লিগে এই দুজনের চেয়ে বেশি গোল আছে কেবল ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর, ৩১১টি।

বিলবাওয়ের বিপক্ষে লা লিগায় বেনজেমার গোল হলো ২৬ ম্যাচে ১৭টি, যে কোনো দলের বিপক্ষে যা তার সর্বোচ্চ। প্রথমার্ধের বাকি সময়ে আর পরিষ্কার সুযোগ তৈরি করতে পারেনি কেউ। বিরতির সময় টানেলে ঢোকার মুখে জার্সি খুলে গ্যালারিতে দর্শকদের মাঝে ছুঁড়ে দেন বেনজেমা।

৫৯তম মিনিটে একটি সুযোগ পান নাচো ফের্নান্দেস। কাছ থেকে তার প্রথম প্রচেষ্টা প্রতিহত হয় রক্ষণে, ফিরতি শট ঠেকান গোলরক্ষক উনাই সিমোন। খানিক পর ব্যবধান বাড়ানোর সুবর্ণ সুযোগ পেয়ে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি আসেনসিও। ৬৯তম মিনিটে সমতা টানার সুযোগ হারান নিকো উইলিয়ামস। ১০ গজ দূর থেকে বল বাইরে মারেন ২০ বছর বয়সী উইঙ্গার। ৭৩তম মিনিটে প্রথম বদলি হিসেবে আসেনসিওর জায়গায় লুকা মদ্রিচকে নামান রিয়াল কোচ।

৭৮তম মিনিটে নিকোর ভাই ইনাকি উইলিয়ামস রিয়ালের জালে বল পাঠালেও অফসাইডের কারণে গোল মেলেনি। ৮৫তম মিনিটে সেবাইয়োসের বদলি নেমে পাঁচ মিনিট পর জালের দেখা পান ক্রুস। রদ্রিগোর পাসে ছুটে গিয়ে বক্সের বাইরে থেকে জোরাল নিচু শটে লক্ষ্যভেদ করেন অভিজ্ঞ জার্মান মিডফিল্ডার। নিশ্চিত হয়ে যায় রিয়ালের ৩ পয়েন্ট।

দিনের আগের ম্যাচে গেতাফেকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৬ পয়েন্টে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। কাতালান দলটির সঙ্গে ব্যবধান আবার ৩ পয়েন্টে কমিয়ে আনল রিয়াল। ১৭ ম্যাচে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রিয়াল। তিন নম্বরে রিয়াল সোসিয়েদাদের পয়েন্ট ৩৮। তাদের সমান ১৮ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে আট নম্বরে আছে বিলবাও।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর