শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ নভেম্বর, ২০১৮ ১৫:২৭

নেত্রকোনা-১ আসনে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:

নেত্রকোনা-১ আসনে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

নেত্রকোনার ৫টি আসনেই নৌকার চূড়ান্ত মনোনয়ন সম্পন্ন হয়েছে। কোন কোন আসনে প্রার্থীকে পেয়ে শুকরানা আদায় করছে কর্মীসমর্থকরা। আবার কোথাও কোথাও বিক্ষোভ করছে। 

নেত্রকোনা ৩ আসনে হেভিওয়েট নতুন মুখ প্রার্থী অসীম কুমার উকিলকে পেয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীরা খুশি হয়েছেন। অপরদিকে, নেত্রকোনা-১ আসনে প্রার্থী মানু মজুমদারকে বহিরাগত দাবি করে বিক্ষোভ করছে স্থানীয়রা। 

আজ সোমবার দুপুরে কলমাকান্দা উপজেলার গোতুরা বাজারসহ বিভিন্ন জায়গায় স্থানীয় নেতাকর্মীরা সড়কে বিক্ষোভ করেন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

স্থানীয়দের দাবি, মানু মজুমদার প্রথমত জেলার বর্হিভূত। অন্য জেলার বাসিন্দা। তার উপর স্থানীয় জনগণ বা কোন নেতাকর্মীদের সাথে সংযোগ নেই। নেই এই এলাকার উন্নয়নে কোন ভূমিকা। নিজ বাড়িও নেই। তার উপর সাবেক এমপি’র ছত্র ছায়ায় এতোদিন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করেছেন। এসব নানা কারণ দেখিয়ে বিক্ষোভ করেন স্থানীয়রা।  অন্যাদিকে দূর্গাপুর উপজেলাতেও বিক্ষোবের পরিস্থিতি শুরুর আগেই পুলিশ গিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনে। 

গত রবিবার মনোনয়ন দেয়ার পর থেকেই সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুকসহ বিভিন্ন ভাবে স্থানীয় নেতাকর্মীরা অসন্তোষ প্রকাশ করে আসছেন। বর্ষীয়ান নেতাকর্মীরা নানা বক্তব্য দিয়ে ভিডিও আপলোড দিচ্ছেন। তারা বলছেন, এই আসনটি আওয়ামী লীগ হারাবে নিশ্চত। কারণ মানু মজুমদার প্রথমেই এই জেলার বাসিন্দা নন। তার উপর উনাকে সরকারী কর্মকতা কর্মচারী ছাড়া স্থানীয়ভাবে কেউ চেনেন না। 
সাধারণ মানুষ এলাকায় অযাচিত অপরিচিত অসম্পৃক্ত কাউকে ভোট দেবে না। প্রয়োজনে তারা অন্য দলকে ভোট দিয়ে দেবে। এতে করে আওয়ামী লীগ আসনটি হারিয়ে ফেলবে নিশ্চিত। এমন কথা বার্তা এবং ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে ছড়িয়ে যাচ্ছে। সর্বত্র বইছে সমালোচনার ঝড়। চা-স্টল থেকে শুরু করে পাড়া-মহল্লায় কথা একটাই কে এই মানু মজুমদার ও তাঁর বাড়ী কোথায় এমন প্রশ্ন সবার মাঝে। 

কলমাকান্দা উপজেলার সিদলী গ্রামের স্বপন সিংহ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মানু মজুমদার দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় আমাদের আওয়ামী লীগ ভোটারদের মাঝে তৈরি হয়েছে এক কঠিন উন্মাদনা। তা কাঁটিয়ে উঠা অনেক কঠিন।  আমরা একটি বিক্ষোভ মিছিল করেছি মানু মজুমদারের প্রার্থী প্রত্যাহার চেয়ে। 

দুর্গাপুর উপজেলার শহীদ পরিবারের সন্তান চাঁন মিয়া মেম্বার বলেন, আমরা এমন একজন নৌকার প্রার্থী চেয়েছিলাম। যে কিনা আমাদের কষ্টের কথাগুলো বুঝবে। মানু বাবু কে তাঁকে চিনি না। কিভাবে নৌকার ভোট তাঁকে দিবে এ অঞ্চলের হাজার হাজার ভোটাররা।

পৌর সদরের ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু সিদ্দিক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, নৌকার যে প্রার্থী নাম ঘোষণা আসছে আমরা হতাশ। আমরা হতাশা মুক্ত হতে চাই। অচিরেই এ আসনে মানু মজুমদারকে প্রার্থীতা বাতিল করা হোক। 

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার


আপনার মন্তব্য