Bangladesh Pratidin

ঢাকা, রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬

প্রকাশ : শুক্রবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০ টা আপলোড : ১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ২২:০৪
সাজে আয়নার বায়না
ফ্রাইডে ডেস্ক
সাজে আয়নার বায়না

আয়না হলো সাজের বায়না। চুল পরিপাটি, কপালে টিপ দেওয়া, চোখ-ভ্রু সাজানো, মুখে মেকআপ নেওয়া এমন কি পোশাকটি ঠিকঠাক মতো পরতেও দরকার আয়না।

আয়না বা আরশি যাই বলুন না কেন, এটা ছাড়া নারী-পুরুষ সবারই যেন সাজ অপরিপূর্ণ। যারা একটু বেশি সৌন্দর্য সচেতন, তাদের থাকে আয়না বিলাসিতা। আজকাল আয়না বাড়িঘর সাজাতেও ব্যবহার হয়।

 

আয়নার মধ্যে রয়েছে হাজারো রকম ফের। প্রয়োজন অনুসারে ব্যবহার হয় নানা আকৃতির আয়না। সাজগোজের মুডে নিজেকে সুন্দর দেখার লোভে বারবার আয়নায় চোখ পড়ে যাওয়াটা দোষের কিছু নয়। অনেকে ব্যবহৃত হাতব্যাগে পছন্দসই ছোট আয়না রাখেন। ক্লাস, অফিস, ঘুরতে যাওয়া বা বাইরে কোনো কাজে থাকার সময় নিজের সাজ ঠিক রাখতে কাজে আসে ব্যাগে থাকা আয়নাটি।

 

টাই স্যুট বা পাঞ্জাবি পরে পুরুষরাও ভুলে যান না আরশিতে নিজের ছায়া ফেলতে। পোশাকের সঙ্গে অনুষঙ্গ, চুল, ত্বক, দাড়ির স্টাইল ঠিক আছে কিনা তাও দেখে নেন এক নজরে।

 

আপনার বেড রুমটি বড় দেখাতে ব্যবহার করতে পারেন দেয়ালজুড়ে থাকা আয়না। আবার ঘরের পরিবেশটি অন্য রকম দেখাতে দেয়ালে ব্যবহার করতে পারেন নানান আকৃতির আয়না। কাঠ ও বেতের পাশাপাশি এখন নানা উপাদানে তৈরি হচ্ছে আয়নার ফ্রেম। বাজারে পাওয়া আয়নার ফ্রেমগুলোও বেশ বৈচিত্র্যময়। কোনো কোনো আয়নায় ফ্রেমজুড়ে আবার বসানো হয়েছে ছোট ছোট বেশ কয়েকটি আয়না।

 

বাড়ির প্রবেশপথে কলবেলের পাশে রাখতে পারেন সুন্দর একটি আয়না। এতে বাড়িতে ঢোকার আগেই নিজেকে কেমন দেখাচ্ছে, তা দেখে নেওয়ার সুযোগ থাকবে। বাড়ির প্রবেশপথটিকে গাছ, শোপিস আর মোমবাতি দিয়ে সাজানো যেতে পারে। একটি আয়নাকে কেন্দ্র করেই এসব উপকরণ সাজিয়ে নিতে পারেন।

ত্রিকোণ, চার কোণা, লম্বা, গোল এমন নানা আকৃতির ছোট-বড় বেশ কয়েকটি আয়না দিয়ে সাজাতে পারেন আপনার ঘরের একটি দেয়াল। এসব আয়নার কোনোটিতে হয়তো আপনার চোখ দেখা যাবে, কোনোটিতে হয়তো দেখা যাবে নাক! শিশুরা দারুণ আনন্দ পাবে এমন দেয়াল দেখে। বাড়ি তৈরির সময় দেয়ালে প্লাস্টার করার সময়ই লাগিয়ে নিতে পারেন এসব আয়না। এ ছাড়া বাড়ি তৈরির পর আইকা আঠার সাহায্যেও লাগানো যেতে পারে এসব আয়না। ঘরের আবহাওয়া আরও সুন্দর দেখাতে আয়নাগুলোর ফাঁকে রং করে সাজিয়ে নিতে পারেন দেয়ালটি। ফলস সিলিং তৈরিতে অনেক সময় কাচ ব্যবহার করা হয়। চাইলে সেখানে আয়নাও ব্যবহার করতে পারেন।

 

লিভিং রুম বা ডাইনিং রুমে লাগানো যেতে পারে কারুকার্যময় আয়না। আয়নার এমন ব্যবহার অন্য রকম আবহ এনে দেয়। ঘরে এমন আয়না থাকলে পাশে ড্রেসিং টেবিল না রাখলেও চলে। সাজের সব উপকরণ আয়নার পাশেই একটি র‌্যাকে রাখা যেতে পারে। এতে করে ড্রেসিং টেবিলের জন্য আলাদা জায়গা লাগবে না। ফলে ঘরটিতে অন্য আসবাব রাখার জন্য যথেষ্ট জায়গা পাওয়া যাবে। বাচ্চাদের ঘরের দেয়ালে আয়না লাগাতে চাইলে তাদের পছন্দের কার্টুনের ডিজাইনে তৈরি ফ্রেম ব্যবহার করতে পারেন। এ ছাড়া রঙিন ফ্রেমে বাঁধানো কোনো আয়নাও কিনতে পারেন শিশুর জন্য।

 

কোথায় পাবেন

আড়ং, যাত্রা, চেইন শপ বা বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে পাবেন বিভিন্ন ডিজাইনের দারুণ সব আয়না। বেতের আসবাবের দোকান, ঢাকার গুলশান ডিসিসি মার্কেট, বসুন্ধরা সিটি, নিউমার্কেট, চাঁদনীচক, মৌচাকসহ ছোট-বড় অনেক মার্কেটে মিলবে আয়নার খোঁজ। আকার ও ডিজাইনভেদে এসব আয়না ৫০০ থেকে ২৪ হাজার টাকার মধ্যে কিনতে পাবেন। হাতব্যাগে রাখা ছোট আয়নাগুলো মিলবে ১০ টাকা থেকে ২৫০ টাকার মধ্যে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ

সর্বশেষ খবর
সর্বাধিক পঠিত
এই পাতার আরো খবর
up-arrow