Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১ জুন, ২০১৯ ১৫:১২

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন নিয়ে ফের বাংলাদেশকে দোষ দিল মিয়ানমার

অনলাইন ডেস্ক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন নিয়ে ফের বাংলাদেশকে দোষ দিল মিয়ানমার
সংগৃহীত ছবি

মিয়ানমারের অনুপ্রেবশকারী নাগরিক রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশ যেখানে দেশে-বিদেশে জোরদার ভূমিকার রাখছে; সেখানে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশ নাকি কোনো সাহায্যই করছে না বলে দাবি করেছে মিয়ানমার। বাংলাদেশের উপর দোষ চাপিয়ে দেশটির স্টেট কাউন্সেলর কাইওয়া টিন্ট সয়ে বলেছেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে সম্পাদিত চুক্তিতে সম্মান দেখাচ্ছে না এবং কোনো সহযোগিতা করছে না বাংলাদেশ। খবর নিক্কি এশিয়ান রিভিউ’র।

শুক্রবার জাপানের টোকিওতে অনুষ্ঠিত ‘দ্য ফিউচার অব এশিয়া’ শীর্ষক ২৫তম আন্তর্জাতিক সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন অং সান সুচির অফিস বিষয়ক কেন্দ্রীয় এই মন্ত্রী। তিনি বলেন, মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চল থেকে যেসব মানুষ পালিয়ে গিয়ে শরণার্থী হয়েছে তাদেরকে ফেরত পাঠানো এবং আবাসিক কার্ড দেয়ার বিষয়ে কোনো সহযোগিতা করছে না বাংলাদেশ। একই সঙ্গে ২০১৭ সালের নভেম্বরে প্রত্যাবর্তন নিয়ে দুই দেশের মধ্যে যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল তার প্রতি কোনোই সম্মান দেখাচ্ছে না বাংলাদেশ।

এর আগেও বহুবার রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন নিয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্মেলন ও বিশ্ব মিডিয়ায় ধারাবাহিক মিথ্যাচার করেছে মিয়ানমার। এবার ‘দ্য ফিউচার অব এশিয়া’ শীর্ষক ২৫তম আন্তর্জাতিক সম্মেলনেও তা দেখা গেল। তবে বাংলাদেশের সংশ্লিষ্ট মহল এই দাবি অস্বীকার করেছেন। জানা যায়, শুরু থেকে মিয়ানমার রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিথ্যাচার করছে। বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের ভূমিকাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই মিয়ানমার এ অপচেষ্টা চালাচ্ছে। কেননা মিয়ানমারের অনুপ্রেবশকারী নাগরিক রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনের জন্য দ্বি-পাক্ষিক, আঞ্চলিক ও বহুপাক্ষিক কূটনৈতিক প্রচেষ্টা জোরদার করা হয়েছে বলে আগেই জানিয়েছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। এছাড়া ওআইসির ১৪তম শীর্ষ সম্মেলনে; রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে মুসলিম দেশগুলোকে কার্যকর ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য