Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০১৯ ১৯:৪১

চট্টগ্রামে দুদকের জালে সেই মাদক ব্যবসায়ী আমিন

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামে দুদকের জালে সেই মাদক ব্যবসায়ী আমিন

সেই আলোচিত চট্টগ্রামের পতেঙ্গা থেকে উদ্ধার হওয়া নিহত শিক্ষার্থী তাসফিয়ার বাবা মো. আমিন (৪২) অবশেষে দুদকের জালেই আটকে গেছে। তিনি অবৈধ সম্পদ অর্জনের পাশাপাশি টেকনাফের তালিকাভুক্ত একজন মাদক ব্যবসায়ীও। প্রায় ৬ কোটি ৩৫ লাখ ৭৯ হাজার ৮৪ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও ৩২ লাখ ২৯ হাজার ৩৫৩ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করা হয়েছে। 

এই অভিযোগে বুধবার চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানায় বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয়-২ এর উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন। একইসঙ্গে মো. আমিনের স্ত্রীকেও নোটিস পাঠানো হয়েছিল।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সমন্বিত চট্টগ্রাম জেলা কার্যালয়-২ এর উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদ বিবরণীতে তথ্য গোপনের দায়ে মো. আমিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এতে ২০১৮ সালের ২০ জুন দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়-২ এ সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন মো. আমিন। সম্পদ বিবরণীতে নিজ নামে মোট ১ কোটি ৪১ লাখ ৫৩ হাজার ৫৮৫ টাকার অস্থাবর সম্পদ প্রদর্শন করেন। কিন্তু দুদকের নিজস্ব অনুসন্ধানে ১ কোটি ৭৩ লাখ ৮২ হাজার ৯৩৮ টাকার সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। এছাড়া ৬ কোটি ৩৫ লাখ ৭৯ হাজার ৮৪ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের তথ্যও পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেন বলেন, মামলার এজাহারে আমিনের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বর্হিভূত স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ অর্জনের অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া আমিন দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে ৩২ লাখ ২৯ হাজার ৩৫৩ টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির তথ্য ‘অসৎ উদ্দেশ্যে’ গোপন করেছেন বলেও মামলায় উল্লেখ করা হয়। তবে দুদক আইন-২০০৪ এর ২৬ (২) ও ২৭(১) ধারায় মামলাটি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জানা যায়, তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী দুদকের মামলার আসামী মোহাম্মদ আমিন কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ডেইল পাড়া এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে। তিনি বর্তমানে চট্টগ্রাম মহানগরীর ও আর নিজাম রোডে সিডিএ’র আবাসিক এলাকায় বসবাস করেন। গত বছরের ২ মে পতেঙ্গা থেকে উদ্ধার হওয়া স্কুল শিক্ষার্থী তাসফিয়া আমিনের বাবা হন সেই আমিন। আমিন মেয়ে হত্যার বিচার চেয়ে চট্টগ্রামে সংবাদ সম্মেলনও করেছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য