শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল, ২০২১ ২২:০৬
প্রিন্ট করুন printer

দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নিয়ে নারীকে মারধর, ভিডিও ভাইরাল

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

দোকান থেকে টেনেহিঁচড়ে রাস্তায় নিয়ে নারীকে মারধর, ভিডিও ভাইরাল
Google News

নারায়ণগঞ্জ শহরের কিল্লাপুর এলাকায় এক নারীকে প্রকাশ্যে রাস্তায় বেধড়ক পেটানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপরের ওই মারধরের ঘটনার সিসিটিভি ভিডিও ফুটেজ ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনায় মারধরের শিকার ওই নারী নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় গিয়ে ১০ জনকে আসামি করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, একটি বিকাশের দোকানে এক নারী আশ্রয় নিয়েছেন। ওই সময় দোকানি ওই নারীকে বাঁচাতে দোকানের শার্টার লাগিয়ে দেন। একপর্যায়ে বেশ কয়েকজন যুবক দোকানের শার্টার খুলে ওই নারীকে টেনেহিঁচড়ে দোকান থেকে বের নিয়ে যান। পরে সেখানে বেধড়ক লাঠিপেটা করেন তাকে।

থানায় দেওয়া অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কিল্লারপুল এলাকার এনায়েত আলী চিশতিয়া মাজারে প্রধান খাদেম হিসেবে দেখাশোনা করে আসছিলেন মোছাম্মৎ মাহবুবা আক্তার নুপুর নামের এক নারী। মাজার নিয়ে পূর্ববিরোধের জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয় বাসিন্দা ইরান, রিপন, হুজুল, ফারুক, আমির, মনির, লাদেন, নিক্কাত, রনি ও আহমদ মিয়া মাজারের ভেতরে প্রবেশ করে, দান বাক্স লুট করার চেষ্টা চালান।তারা মাজারের তালা ভেঙে ৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন। তখন মাহবুবা আক্তার নুপুর তাদের বাধা দেন। এতে তারা নুপুরের ওপর ক্ষিপ্ত হন। নুপুর ভয়ে কিল্লারপুলের একটি মোবাইলের দোকানে গিয়ে আশ্রয় নেন। সেখান থেকে তারা নুপুরকে টেনেহেঁচড়ে রাস্তায় ফেলে উপুর্যুপরি লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন। তখন নুপুরের সঙ্গে থাকা নগদ ১৬ হাজার টাকা, ১০ ভরি ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ও একটি ব্রেসলেট ছিনিয়ে নেন যুবকরা। পরবর্তীতে নুপূরের আত্মীয়-স্বজন খবর পেয়ে ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করেন এবং হাসপাতালে নিয়ে যান। 

চিকিৎসা শেষে আহত নুপূর বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় ওই লিখিত অভিযোগ দেন।  

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান জানান, এ বিষয়ে শুক্রবার থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।
 
বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর