শিরোনাম
প্রকাশ : ২ আগস্ট, ২০২১ ২০:৪৬
প্রিন্ট করুন printer

১৭ ঘণ্টায় ৩ দাফন ও ২ প্লাজমা ডোনেশন টিম খোরশেদের

অনলাইন ডেস্ক

১৭ ঘণ্টায় ৩ দাফন ও ২ প্লাজমা ডোনেশন টিম খোরশেদের
Google News

দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই করোনায় মারা যাওয়াদের দাফন, প্লাজমা ডোনেশন এবং ত্রাণ বিতরণসহ বিভিন্ন কাজ করে চলেছে টিম খোরশেদ।

এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার দিবাগত রাত ২টা থেকে সোমবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত ১৭ ঘণ্টায় মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুরে ও নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় টিম খোরশেদ ২৪০, ২৪১ ও ২৪২তম করোনা পজিটিভ মৃতদেহ দাফন ও ১১৫ ও ১১৬তম প্লাজমা ডোনেশন সম্পূর্ণ করেছে। 

প্লাজমা ডোনেশন

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ইউনাইটেড হসপিটালের আইসিইউতে ভর্তি ২০ বছরের কিশোর ইফতিকে তার পরিবারের আহ্বানে ২ ইউনিট প্লাজমা ডোনেশন করেছেন টিম খোরশেদের প্লাজমা টিমের প্রধান সমন্বয়কারী আরাফাত খান নয়ন। এটি ছিল টিম খোরশেদের ১১৫ ও ১১৬তম প্লাজমা ডোনেশন। 

৩টি দাফন

মুন্সিগঞ্জ জেলার সদর থানার মুক্তারপুর নিবাসী হাজেরা বেগম (৬৫) করোনায় আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জের কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গতকাল রবিবার রাত ১০টা ৩৫ মিনিটে মারা যান। মরহুমার পরিবারের আহ্বানে টিম খোরশেদ’র স্বেচ্ছাসেবকরা হাসপাতাল থেকে মৃতদেহ গ্রহণ করে রবিবার দিবাগত রাত ২টায় মাসদাইর কবরস্থানে এনে গোসল ও জানাজা শেষ করে। পরে বাদ ফজর মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুরে স্থানীয় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

অন্যদিকে, সোমবার সকাল ৯টা ১০মিনিটে ফতুল্লা থানার পুলিশ লাইন্স আফাজনগর নিবাসী মাহাবুব মুন্সী (৫০) করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার ইমপাল্স হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। টিম খোরশেদের স্বেচ্ছাসেবকরা মাসদাইর কবরস্থানে গোসল ও জানাজা শেষে বাদ আসর একই কবরস্থানে দাফন সম্পূর্ণ করেছেন।

এছাড়াও আজ দুপুর ১টায় ফতুল্লা থানার জামতলা নিবাসী আনোয়ারা বেগম (৭৩) করোনায় আক্রান্ত হয়ে নারায়ণগঞ্জের কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মারা যান। টিম খোরশেদ’র স্বেচ্ছাসেবকরা হাসপাতাল থেকে মৃতদেহ গ্রহণ করে তার বাড়িতে এনে গোসল শেষে বাদ আসর মাসদাইর কবরস্থানে জানাজা ও দাফন সম্পূর্ণ করেছেন।

আজ টিমে উপস্থিত ছিলেন হাফেজ শিব্বির, রানা মুজিব, নাজমুল কবীর নাহিদ, ইউপি মেম্বার রোজিনা আক্তার, আনোয়ার হোসেন, হাফেজ রিয়াদ, নুসরাত জাহান রিয়া, সুমন দেওয়ান, মো. সহিদ, রফিক হাওলাদার ও মো. নাঈম।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর