শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ আগস্ট, ২০২১ ২১:৩৯
প্রিন্ট করুন printer

গাজীপুরে গরু বিক্রির ১৩ লাখ টাকা ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ৪

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরে গরু বিক্রির ১৩ লাখ টাকা ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ৪
গ্রেফতারকৃত আন্তঃজেলা ৪ ডাকাত
Google News

রাজধানীর হাটে গরু বিক্রি করে ফেরার পথে হাত-পা ও চোখ বেঁধে ৬ ব্যবসায়ীকে ট্রাক থেকে সড়কের পাশে ফেলে দেয় যাত্রীবেশী একদল ডাকাত। এ সময় ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ১৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয় ডাকাতরা। এ ঘটনায় আন্তঃজেলা ডাকাত দলের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে গাজীপুরের পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ এ তথ্য জানিয়েছেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত এক লাখ টাকাসহ ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক উদ্ধার করা হয়েছে। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, রাজশাহীর বেলপুকুর থানাধীন মহেলদা এলাকার মৃত হারেজ মণ্ডলের ছেলে মো. মাইনুল ইসলাম (৩০), নাটোরের সিংড়া থানাধীন বনপুরি গ্রামের মৃত তয়জাল প্রামাণিকের ছেলে রজব আলী (৩০) ও মানিক প্রামাণিকের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (২৩) এবং একই জেলার সদর থানার লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া এলাকার মৃত জিন্নত আলীর ছেলে আবুল বাশার ওরফে বাদশা (৪৫)। 

পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ জানান, ঈদের আগেরদিন (২০ জুলাই) ঢাকার গুলশান থানাধীন নতুন বাজার সাঈদ নগর হাটে ১৪টি গরু ১৩ লাখ টাকা বিক্রি করে রাতে ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের উদ্দেশে রওনা হন ৬ ব্যবসায়ী। পথে তারা বারিধারা নতুন বাজার এলাকায় সড়কের পাশে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করে একটি ট্রাকে উঠেন। ওই ট্রাকে গরু ব্যবসায়ী সেজে ১২ সদস্যের একদল ডাকাত যাত্রী বেশে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে বসেছিল। ট্রাকটি গফরগাঁও যাওয়ার পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের সালনা ব্রিজ এলাকায় পৌঁছলে ডাকাতরা ওই ৬ ব্যবসায়ীকে এলোপাথারি মারধর করে। এ সময় তারা গামছা দিয়ে ব্যবসায়ীদের চোখ, হাত ও পা বাঁধে এবং ৬টি মোবাইলসহ গরু বিক্রির ১৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে চোখ ও হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ব্যবসায়ীদের জয়দেবপুর থানাধীন বাঁশরী সড়কের ঢালে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাতরা।

এ ব্যাপারে ২৭ জুলাই জয়দেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নাটোর, সিরাজগঞ্জ, সাভার ও টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ডাকাত দলের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করে। মামলা দায়েরের এক সপ্তাহের মধ্যে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে লুণ্ঠিত এক লাখ টাকাসহ ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। তারা পুলিশের কাছে ডাকাতির কথা স্বীকার করেছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন

এই বিভাগের আরও খবর