১৪ আগস্ট, ২০২১ ১৭:২০

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মুক্তিযােদ্ধাদের শোক মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মুক্তিযােদ্ধাদের শোক মিছিল

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মুক্তিযােদ্ধারা শোক মিছিল করেছে। আজ সকালে বাংলাদেশ মুক্তিযােদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটির ব্যাপারে শোক মিছিল শেষে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে স্থাপিত হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ অর্পণ করা হয়।

এ সময় মুক্তিযােদ্ধাগণ জাতির পিতার পলাতক খুনিদের ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা এবং বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যে কারা ছিলেন সে রহস্য উন্মোচনের জন্য কমিশন গঠনের দাবি করেন। 

বাংলাদেশ মুক্তিযােদ্ধা সংসদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযাদ্ধা সফিকুল বাহার মজুমদার টিপুর নেতৃত্বে পান্থপথ থেকে মিছিল নিয়ে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরের সামনে গিয়ে শেষ হয়। এখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মুক্তিযাদ্ধা সংসদ নির্বাচন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযােদ্ধা আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা শরীফ উদ্দিন, বীর মুক্তিযােদ্ধা আনোয়ার হোসেন বীর প্রতীক, বীর মুক্তিযােদ্ধা মো. তাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযােদ্ধা কমান্ডার আবুল বাসার, বীর মুক্তিযােদ্ধা মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, বীর মুক্তিযােদ্ধা এবি সিদ্দিক মোল্লা, মুক্তিযােদ্ধার সন্তান ও গোপালগঞ্জ জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান তানিয়া হক শোভা, মুক্তিযােদ্ধা সন্তানদের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল হক নয়ন, রশিদ মন্ডল রানা প্রমুখ। 

সমাবেশে বক্তারা বলেন, পাকিস্তানি দোসরা বাংলাদেশের স্বাধীনতা মেনে নিতে পারেনি বলেই জাতির পিতাকে হত্যা করে। তারা চেয়েছিল ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশকে পাকিস্তানি ভাবধারায় ফিরিয়ে নিয়ে যাবে। কিন্ত সে স্বপ্ন পুরণ হয়নি। দীর্ঘ ২১ বছর পর বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে জাতির পিতার হত্যার বিচার করে দেশকে কলঙ্কমুক্ত করেছেন। বঙ্গবন্ধুকন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজকে উন্নয়নের মহাসড়কে।

তারা বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার হয়েছে। কিছু খুনির রায় কার্যকর হয়েছে। এখনো অনেকে বিভিন্ন দেশে পলাতক রয়েছে। তাদের ফিরিয়ে এনে দ্রুত রায় কার্যকর করতে হবে। একই সঙ্গে কমিশন গঠনের মাধ্যমে জাতির পিতার হত্যার নেপথ্যে কারা জড়িত ছিলেন সে মুখোশ উন্মোচন করতে হবে। মুক্তিযােদ্ধারা আরো বলেন, করোনার মহামারিতেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজকে টিকার সংকট কেটে গেছে। দেশের মানুষকে সুরক্ষা দিতে তিনি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর জন্য দেশবাসীকে দোয়া করতে বলেন মুক্তিযাদ্ধারা। 

পরে তেজগাঁও শাহপন্থীশাহ মাজার মসজিদ এতিম খানায় কোরআন খানি মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। এ সময় ১০০০ হাজার গরীব দুঃখী মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

এই বিভাগের আরও খবর