শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ এপ্রিল, ২০২০ ২৩:৩০

রংপুরে অপরাধ কমেছে মামলার সংখ্যা অর্ধেকে

নজরুল মৃধা, রংপুর

রংপুরে অপরাধ কমেছে মামলার সংখ্যা অর্ধেকে

রংপুরে করোনার প্রভাবে সামাজিক অপরাধের মাত্রা কমেছে। মেট্র্রোপলিটনের ৬টি থানায় প্রতি মাসে গড়ে ১৬০ থেকে ১৭০টি অপরাধের মামলা হতো। তা কমে এখন প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে। অপরদিকে জেলার ৮টি থানায় চুরি, ছিনতাই, ধর্ষণসহ বিভিন্ন অপরাধের পরিমাণও কমেছে।  রংপুর জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসের চেয়ে মার্চ ও এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অপরাধের মাত্রা ও মামলার সংখ্যা অর্ধেকে নেমে এসেছে। করোনা প্রতিরোধে মাঠ পর্যায়ে পুলিশের নজরদারি বৃদ্ধি পাওয়ায় এমনটা হয়েছে বলে মনে করছেন পুলিশের কর্মকর্তারা। এছাড়া অপরাধীদের মাঝেও করোনা আতঙ্ক বিরাজ করায় তারা ঘরমুখী রয়েছে এবং অপরাধ করতে সাহস পাচ্ছে না।  সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নগরীর প্রধান সড়ক ছাড়াও পাড়া-মহল্লায় কয়েক হাজার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। করোনার কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা বাড়িতে অবস্থান করছেন। কয়েক মাস আগেও নগরীর প্রাণকেন্দ্রে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের তালা ভেঙে চুরির ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু গত দুই সপ্তাহের মধ্যে কোনো ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনা ঘটেনি। এছাড়া রাস্তায় ছিনতাই কিংবা বড় ধরনের কোনো অপরাধ ঘটেনি দুই সপ্তাহে। জেলার মিঠাপুকুর, পীরগঞ্জ, তারাগঞ্জ, বদরগঞ্জ, গঙ্গাচড়া, সদর, কাউনিয়া ও পীরগাছা থানার মধ্যে দুটি থানায় অপরাধের প্রবণতা বেশি। ওই দুটি থানায় প্রতি মাসে কোথাও না কোথাও বড় অপরাধের ঘটনা ঘটে। ৮ থানায় গড়ে ১২০ থেকে ১৩০টি মামলা হতো। তা এখন অর্ধেকে নেমে এসেছে। স্থানীয় ও জেলা পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত ১৫ দিনে ওইসব এলাকায় বড় ধরনের কোনো অপরাধ ঘটেনি। আইনশৃঙ্খলাবাহিনী, স্থানীয় প্রশাসনের সতর্কতা ও সেনাবাহিনীর টহলের কারণে অপরাধীরা অপরাধ করতে পারছে না বলে মনে করছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মুহা. আবদুল আলীম মাহামুদ জানান, করোনাসচেতনতায় পুলিশি টহল এবং নজরদারি বৃদ্ধি হওয়ায় অপরাধের পরিমাণ অনেক কমে গেছে। পুলিশ করোনা প্রতিরোধে সচেতনতার পাশাপাশি অপরাধ তৎপরতা রোধেও কাজ করছেন। রংপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু মারুফ হোসেনও জানান, করোনা আতঙ্কে অপরাধের মাত্রা কমেছে। অপরাধের মাত্রা যাতে সবসময় কম থাকে এ জন্য পুলিশ সতর্ক রয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর