শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৪

সাতটি কেন্দ্রে টিকা কার্যক্রম শুরু হয়নি খুলনায়

টিকা নিতে আগ্রহ বাড়ছে সাধারণ মানুষের

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনায় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক শীর্ষ নেতারা নিজেরা করোনা টিকা নিয়ে সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করছেন। গণমাধ্যম ও ফেসবুকে টিকা প্রদান কার্যক্রম দেখে অনেকেই আগ্রহ নিয়ে ভিড় করছেন টিকা কেন্দ্রে। চাপ সামলাতে অতিরিক্ত টিকা কেন্দ্র খোলার কথা ভাবছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। তবে সার্ভার জটিলতায় এখনো নগরীর সাতটি কেন্দ্রের টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু করা যায়নি। এতে ভোগান্তিতে পড়ছেন ওইসব কেন্দ্রের আওতায় থাকা সাধারণ মানুষ। জানা যায়, নগরীর ১৩টি কেন্দ্রের মধ্যে গতকাল পর্যন্ত খালিশপুর লাল হাসপাতাল, তালতলা মাতৃসদন হাসপাতাল ৩০ নম্বর ওয়ার্ড, নগর মাতৃসদন ১২ নম্বর ওয়ার্ড খালিশপুর, আমিরা বানু নগর মাতৃসদন ২২ নম্বর ওয়ার্ড, নগর মাতৃসদন বাইতিপাড়া ও বক্ষব্যাধি হাসপাতাল ফুলবাড়ীগেটে টিকা প্রদান কার্যক্রম চালু করা সম্ভব হয়নি।

এ ছাড়া সিভিল সার্জন অফিস কেন্দ্রটিকে মনিটরিং কাজে ব্যবহার করায় এখানেও টিকা দেওয়া হচ্ছে না।

সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এ কে এম আবদুল্লাহ জানান, সার্ভার জটিলতায় এসব কেন্দ্রে টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়নি। এ বিষয়ে এরই মধ্যে সিভিল সার্জনকে জানানো হয়েছে। তার উপজেলায় আরও কিছু কেন্দ্রে জটিলতা রয়েছে। সব মিলিয়ে ঢাকায় জানানো হলে পর্যায়ক্রমে কেন্দ্রগুলো চালু করা হবে।

এদিকে গত রবিবার থেকে খুলনায় মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, পুলিশ হাসপাতাল, শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতাল, খুলনা জেনারেল হাসপাতাল, উপশম হাসপাতাল, বাংলাদেশ নেভি ও শিশু হাসপাতালে টিকা কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, গত তিন দিনের টিকা প্রদান কার্যক্রমের চিত্র দেখে এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার খবর না পেয়ে গতকাল চতুর্থ দিনে প্রতিটি কেন্দ্রে আগ্রহীরা ভিড় করেছেন। রবিবার প্রথম দিনে খুলনায় টিকা নিয়েছে মাত্র ৮৬৩ জন। সেখানে তৃতীয় দিন মঙ্গলবার টিকা নিয়েছেন ৩ হাজার ৩১৫ জন। এ কারণে চাপ এড়াতে সার্ভার জটিলতায় বন্ধ থাকা কেন্দ্রগুলোও দ্রুত চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ এবং সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মদ গতকাল জেনারেল হাসপাতালে করোনা টিকা নিয়েছেন। এর আগে গত রবিবার সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হারুনুর রশীদ ও মেডিকেল কলেজ অধ্যক্ষ ডা. আবদুল আহাদ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনার টিকা নেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর