শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ জুলাই, ২০২০ ০৪:৫১
আপডেট : ৭ জুলাই, ২০২০ ১০:৪০

হতাশ করল ভারত বায়োটেক, সহসাই তৈরি হচ্ছে না করোনা ভ্যাকসিন!

অনলাইন ডেস্ক

হতাশ করল ভারত বায়োটেক, সহসাই তৈরি হচ্ছে না করোনা ভ্যাকসিন!
প্রতীকী ছবি

করোনার এই দুর্যোগে ভারতবাসীকে হতাশ করলো ভারত বায়োটেক। কেননা চলতি বছরে করোনার প্রতিষেধক বাজারে আসার কোনও সম্ভাবনাই নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে সংস্থাটি। তারা বলছে, প্রাণঘাতী করোনার প্রভ্যাসিন তৈরি করতে ২০২১ সাল পর্যন্ত সময় লাগবে। খবর নিউজ এইটটিনের।

করোনাভাইরাসের গ্রাসে ভয়ংকর অবস্থা গোটা বিশ্বে। প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর হার। এই পরিস্থিতিতে করোনার প্রতিষেধক নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালাচ্ছেন গবেষকরা। এই মুহূর্তে ১০টিরও বেশি প্রতিষেধকের মানবদেহে ট্রায়াল চলছে। এরই মধ্যে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ বা আইসিএমআর জানিয়েছে,আগামী ১৫ অগাস্ট স্বাধীনতা দিবসেই ভারতের বিজ্ঞানীদের তৈরি করোনার প্রতিষেধকটি সব জায়গায় পাওয়া যাবে।

তবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় বলছে, ২০২১ সালের আগে করোনার প্রতিষেধক বাজারে আসার কোনও সম্ভাবনা নেই। করোনার প্রতিষেধক হাতে পেতে ২০২১ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। এদিকে বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন ও আহমেদাবাদের জাইডাস ক্যাডিলার তৈরি জাইকভ-ডি এই দু’টি করোনা প্রতিষেধক ডিসিজিআই-এর থেকে হিউম্যান ট্রায়ালের অনুমতি পেয়েছে।

সবশেষে ইন্ডিয়ান একাডেমি অব সায়েন্স জানিয়েছে, করোনার প্রতিষেধক বাজারে আনার ক্ষেত্রে তড়িঘড়ি করা উচিত হবে না। এতে করে মানব দেহে বিরুপ প্রতিক্রিয়ারও আশঙ্কা রয়েছে। মোট দু দফায় চলবে এই পরীক্ষা। হায়দরাবাদের ওষুধ প্রস্তুকারক সংস্থা ভারত বায়োটেককে এই কাজে যৌথভাবে সহায়তা করেছে আইসিএমআর।

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর