শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ২২:৫৭

কমনওয়েলথ স্কলারশিপপ্রাপ্তদের নির্দেশনা দিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল

অনলাইন ডেস্ক

কমনওয়েলথ স্কলারশিপপ্রাপ্তদের নির্দেশনা দিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল

যুক্তরাজ্যের কমনওয়েলথ স্কলারশিপ কমিশন (সিএসসি)-এর পক্ষে ২৫ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থিত ব্রিটিশ কাউন্সিল ঢাকার কার্যালয়ে ২০১৯-২০ বর্ষের কমনওয়েলথ স্কলারদের যুক্তরাজ্য যাওয়ার আগে ব্রিফিং বা প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান সংক্রান্ত অনুষ্ঠান আয়োজন করেছে ব্রিটিশ কাউন্সিল।    

পুরো আয়োজনের তত্ত্বাবধানে ছিলেন সাউথ এশিয়া কমনওয়েলথ স্কলারশিপ-এর আঞ্চলিক সমন্বয়ক তওসিফ মান্নান খান। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ৫০জন মেধাবী স্কলার ও ফেলো এবং পাঁচজন কমনওয়েলথ অ্যালামনাই ব্রিফিং সেশনে অংশগ্রহণ করেন। সেশনটিতে ভিসা, বাসস্থান, মেডিকেল সুবিধা, খাবার ইত্যাদি সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য এবং পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে অংশগ্রহণকারীদের।   
ব্যক্তিগত ও শিক্ষাগত উন্নয়নের লক্ষ্যে ইউকে এডুকেশনের সুবিধাসমূহ যেন স্কলাররা গ্রহণ করতে পারে সে ব্যাপারে উদ্বুদ্ধকরণ সূচনা বক্তব্য দেয়ার মধ্য দিয়ে আয়োজন শুরু করেন ব্রিটিশ কাউন্সিলের ডেপুটি ডিরেক্টর ফেই নিকোলাস। সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপনী ঘোষণা করেন ব্রিটিশ কাউন্সিলের এডুকেশন, ইংলিশ এন্ড স্কিলস প্রোগ্রামের প্রধান সুরাইয়া জাহান। স্কলাররা দেশে ফিরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিজ নিজ অবস্থান থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।   
শিক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত সহায়তা, যুক্তরাজ্যের জীবনব্যবস্থা, পেশাদার উন্নয়ন ইত্যাদি ক্ষেত্রে কমনওয়েলথ অ্যালামনাইদের কাছ থেকে প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা পেতে অনেক স্কলার ইতিমধ্যে কমনওয়েলথ অ্যালামনাই মেন্টরশিপ প্ল্যান (সিএএমপি)-এ নিবন্ধন করেছেন। যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে ভ্রমণের আগেই ফলপ্রসূ যোগাযোগের লক্ষ্যে সেশন চলাকালীন মেন্টর অ্যালামনাইদের সাথে স্কলারদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়েছে। এসময়ে মেন্টর বা পরামর্শকগণ নিজেদের স্কলারশিপ অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন এবং প্রয়োজনীয় জিজ্ঞাসা ও দিক-নির্দেশনার জন্য তাদের কাছে আসতে স্কলারদের উদ্বুদ্ধ করেন।       
উল্লেখ্য, ব্রিফিংয়ের পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক গবেষণা, গবেষণামূলক লেখনী ও প্রাতিষ্ঠানিক সফলতা বিষয়েও তিনজন অ্যালামনাই এবটি সেশন পরিচালনা করেন। “অন্যান্য স্কলারদের সাথে মিলিত হয়ে আজকের ব্রিফিং সেশনে অংশ নেয়ায়, যুক্তরাজ্য যাওয়ার আগে আমার মাঝে আত্মবিশ্বাস ও দৃঢ়তা চলে এসেছে।” বলেন ব্রিফিংয়ে অংশ নেয়া এক স্কলার।  

কমনওয়েলথ স্কলারশিপ কমিশন (সিএসসি) ইউকে-এর আওতাধীন অ্যাসোসিয়েশন অব কমনওয়েলথ ইউনিভার্সিটিজ (এসিইউ) সহায়তায় কমনওয়েলথ স্কলারশিপ-এর আওতায় পরিচালিত উক্ত স্কলারশিপ প্রোগ্রামটিকে সমর্থন দিয়ে আসছে ব্রিটিশ কাউন্সিল এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। উল্লেখ্য, কমনওয়েলথ স্কলারশিপ কমিশন (সিএসসি) ইউকে, যুক্তরাজ্য সরকারের হয়ে পুরো ফেলোশিপ প্রোগ্রাম পরিচালনা করে থাকে। কমনওয়েলথ স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে চাইলে ও প্রয়োজনীয় তথ্য জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ে মঞ্জুরি কমিশন, বাংলাদেশের সাথে যোগাযোগ কিংবা ব্রিটিশ কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে (http://www.britishcouncil.org.bd/en/commonwealth-scholarship-and-fellowship-plan-csfp) ভিজিট করতে হবে শিক্ষার্থীদের। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর