Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:৩৪

একজন শিক্ষক দিয়ে ছয় শ্রেণির পাঠদান!

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

একজন শিক্ষক দিয়ে ছয় শ্রেণির পাঠদান!

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার শাহবাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আট বছর ধরে একজন শিক্ষক দিয়ে চলছে ছয় শ্রেণির পাঠদান। ফলে যথাযথ শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। বেড়েছে ঝরে পড়ার হার। এলাকাবাসী জানান, রাজনগর উপজেলার হাওর কাউয়াদীঘির পূর্বাঞ্চলে আবস্থিত শাহাবাজপুর গ্রাম। হাওর অধুষ্যিত এই গ্রামের ছেলে-মেয়ের জন্য একমাত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শাহবাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়টিতে বর্তমানে প্রাক-প্রাথমিক থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত ১২০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত থাকলেও শিক্ষক রয়েছেন মাত্র একজন। প্রায় একই চিত্র পাশের গ্রামের ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। সেখানেও একজন প্রধান শিক্ষক ও একজন সহকারী শিক্ষক দিয়ে পাঠদান করা হচ্ছে। অভিযোগ আছে, হাওরপাড়ের অন্য গ্রামগুলোর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও সময়মত বিদ্যালয়ে আসেন না। আবার অনেকে ছুটি না নিয়ে একের পর এক বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকছেন।

শাহবাজপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যোগময় চক্রবর্তী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তিনি একা পাঠদান চালাচ্ছেন। ছয়টি ক্লাস একা সামলাতে হিমশিম খেতে হয়। শিক্ষক দেওয়ার জন্য একাধিকবার লিখিত ও মৌখিক আবেদন করলেও সুরাহা হয়নি। ফতেপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান বলেন, ‘আমরা দুজন শিক্ষক অনেক কষ্ট করে পাঠদান করাচ্ছি।’ রাজনগর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাফর আল সাদিক বলেন, দুর্গম এলাকায় শিক্ষক যেতে চান না, আমরা প্রতি মাসে শিক্ষক সংকটের কাথা ঊর্ধ্বতন অফিসে জানাচ্ছি। মৌলভীবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মালেকা পারভীন জানান, বিষয়টি তার জানা ছিল না। শিগগিরই ওই দুটি স্কুলে শিক্ষক দেওয়ার চেষ্টা করব।


আপনার মন্তব্য