শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ মার্চ, ২০২১ ২৩:২৯

মাঠজুড়ে বোরো ধান

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

মাঠজুড়ে বোরো ধান

চলতি মৌসুমে পশ্চিমাঞ্চলের ছয়টি জেলায় লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত জমিতে বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। এখন দিগন্ত বিস্তৃত মাঠজুড়ে সবুজের সমারোহ। আগাম চাষ করা ধান খেতগুলোতে শীষ বের হতে শুরু করেছে। বাকি খেতগুলো থোর অবস্থায় রয়েছে। মাসখানেকের মধ্যে আগাম চাষ করা বোরো ধান কাটা  শুরু হবে বলে চাষিরা জানিয়েছেন। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের যশোর আঞ্চলিক অফিস সূত্রে জানা যায়, এবার যশোরে এক লাখ ৫৭ হাজার ৪৩৫ হেক্টরে, ঝিনাইদহে ৮০ হাজার ২৮৪ হেক্টরে, মাগুরায় ৩৭ হাজার ৩৫০ হেক্টরে, চুয়াডাঙ্গায় ৩৫ হাজার ৭৪০ হেক্টরে, মেহেরপুরে ১৯ হাজার ১০০ হেক্টরে ও কুষ্টিয়া জেলায় ৩৫ হাজার ১৩৬ হেক্টরে বোরো চাষ হয়েছে। এ ছয়টি জেলায় বোরো চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল তিন লাখ ৫৩ হাজার ৭৮০ হেক্টরে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১০ হাজার হেক্টর বেশি জমিতে চাষ হয়েছে। ধানের দাম বেশি হওয়ায় চাষিরা বোরো চাষে ঝুঁকেছেন। এখন পর্যন্ত বোরোর অবস্থা ভালো বলে চাষিরা জানান। তবে বৃষ্টি না হওয়ায় সেচ বেশি লাগছে। এতে উৎপাদন খরচও বেশি হচ্ছে। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হাজরা গ্রামের মিলন হোসেন জানান, তিনি আড়াই বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন। ধান থোর অবস্থায় আছে। তাদের এলাকায় বোরোর অবস্থা ভালো। মেহেরপুর সদর উপজেলার কাচারিপাড়া গ্রামের ধানচাষি মাহবুবুল হক জানান, সাড়ে পাঁচ বিঘা জমিতে বোরো চাষ করেছেন। মাঝে হালকা পোকার আক্রমণ হয়েছিল। এখন নেই। ধানের শীষ বের হতে শুরু করেছে। ফসলের অবস্থা ভালো। বৃষ্টি না হওয়ায় সেচ খরচ বেশি লাগছে। সেচযন্ত্রের মালিকরা বিঘাপ্রতি সেচ দিতে সাড়ে ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত নিচ্ছেন। যশোর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শস্য) দীপঙ্কর দাস জানান, যশোর ভবদহের যে জলবদ্ধতা দূর করার কারণে কোনো চাষ হতো না, সেখানে এবার ধান চাষ হয়েছে। তিনি জানান, ছয়টি জেলায় বোরো ধানের অবস্থা ভালো। আগাম চাষকৃত ধানে শীষ বের হয়েছে। দেড় মাসের মধ্যে বোরো ধান কাটা শুরু হতে পারে।


আপনার মন্তব্য