শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ মে, ২০২১ ২৩:১৬

ইট ভাঙা মেশিনের বিকট শব্দে অতিষ্ঠ শহরবাসী

শব্দদূষণ, বায়ুদূষণসহ যন্ত্রণাদায়ক পরিস্থিতিতে পড়তে হয় শহরবাসীকে

কামরুজ্জামান সোহেল, ফরিদপুর

ইট ভাঙা মেশিনের বিকট শব্দে অতিষ্ঠ শহরবাসী
Google News

ফরিদপুর পৌরসভা শহরের মধ্যে ইটা ভাঙা নিষিদ্ধ করে মাইকিং করেছে। ওই মাইকিংয়ে বলা হয়েছে ইট ভাটা থেকেই ভেঙে আনতে হবে। শহরের মধ্যে ইট ভাঙা চলবে না। এ ঘোষণাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে শহরে ইট ভাঙা অব্যাহত রেখেছে বহুতল বিশিষ্ট বিভিন্ন অট্টালিকা নির্মাণের কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরা। কোনো কোনো ক্ষেত্রে পৌরসভার দৃষ্টি আকর্ষণ করেও কোনো সমাধান মিলছে না। এই প্রচ  দাবদাহের মধ্যে দিনরাত মিলিয়ে ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা বিরতিহীনভাবে মেশিন দিয়ে ইট ভাঙা হচ্ছে। এর ফলে শব্দদূষণ, বায়ুদূষণসহ এক নারকীয় যন্ত্রণাদায়ক পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়েছে শহরবাসীকে। শনিবার সকালে শহরের ঝিলটুলী মহল্লা এলাকার উকিল পাড়া সড়কে পূর্ব ও পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত পাশাপাশি নির্মাণাধীন দুটি বহুতল ভবন ‘পার্থিব নিলয়’ ও ‘নাহার গার্ডন’-এ ইট ভাঙা শুরু করে। ওই এলাকার লোকদের ঘুম ভাঙে এ ইট ভাঙার শব্দে। ওই এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে গত শুক্রবার পার্থিব নিলয়ে নির্মাণকাজে নিয়োজিত শ্রমিকরা ভোর ৬টা থেকে ইট ভাঙা শুরু করে বিরতিহীনভাবে এ ইট ভাঙা শেষ হয় রাত ৮টার দিকে। শনিবার সকাল থেকে পার্থিব নিলয় ইট ভাঙা শুরু হয়। একই সঙ্গে পাশের নাহার গার্ডেনও ইট ভাঙা শুরু করে। পার্থিব নিলয়ে কর্মরত শ্রমিকদের প্রধান হিসেবে দায়িত্বে রয়েছেন মো. হাশমত আলী মোল্লা। তিনি নিজেকে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে দাবি করে বলেন, শহরে ইট ভাঙা মেশিন দিয়ে ইট ভাঙা নিষিদ্ধ করেছে পৌরসভা, এ কথা তিনি জানেন না। পার্থিব নিলয় এর স্বত্ব¡াধীকারী ফরিদপুর সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রভাষক খন্দকার বাবুল হোসেন। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করেছিলাম ভাটা থেকে ইট ভেঙে আনতে। কিন্তু হঠাৎ বৃষ্টি হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, আমি জানি  যে লোকালয়ে এ ভাবে ইট ভাঙলে এলাকাবাসীর জন্য কি জাতীয় দুর্বিষহ অবস্থার সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন, আগামীতে এ বিষয়ে আমরা সতর্ক হবো। শহরের ঝিলটুলী মহল্লার বাসিন্দা মোস্তাফিজুর রহমান মনির মিয়া বলেন, ঝিলটুলীর মতো ঘনবসতিপূর্ণ জায়গায় ইট ভাঙা হয় দিনের ১৮-২০ ঘণ্টা সময়। কানের ভিতর ইট ভাঙার শব্দে বিরক্তিকর আওয়াজই পাওয়া যায়। জেলা পরিবেশ অধিদফতরের উপ-পরিচালক এইচ এম রাশেদুল ইসলাম বলেন, ৬০ ডেসিমেল এই উপর শব্দ হলে সেটি শব্দ দূষণের আওতায় আসে। পাশাপাশি পরিবেশ কতটা দূষিত হচ্ছে সেটি মাপারও যন্ত্র আছে। কিন্তু এ যন্ত্র শুধু ঢাকায় আছে। ফলে জেলা পর্যায়ে তার সুযোগ পাওয়া জটিল।  ফরিদপুর পৌরসভার মেয়র অমিতাভ বোস বলেন, শহরে  মেশিন দিয়ে ইট ভাঙা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

 এ বিষয়ে নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, এ নির্দেশনার পর কেউ তা লঙ্ঘন করে শহরে মেশিন দিয়ে ইট ভাঙলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর