শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি, ২০১৯ ২১:২৪

গউছসহ বিএনপির ৪৮ নেতাকর্মীর জামিন

সিলেট ব্যুরো

গউছসহ বিএনপির ৪৮ নেতাকর্মীর জামিন
জি কে গউছ

হবিগঞ্জে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরবর্তী দায়েরকৃত ৪টি মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়েছেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের বিএনপি মনোনীত ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী জি কে গউছ। একই মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের আরও ৪৮ নেতাকর্মী জামিন পেয়েছেন।

রবিবার বিচারপতি মোহাম্মদ আব্দুল হাফিজ ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ তাদের ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন।

আদালতে আসামিপক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, অ্যাডভোকেট মাসুদ রানা, অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট সুফিয়া আক্তার হেলেন, অ্যাডভোকেট শামছুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট হারুনুর রশিদ।

গত ৩০ ডিসেম্বর ভোটের দিন হবিগঞ্জ শহরের জে কে অ্যান্ড এইচকে হাইস্কুল ভোট কেন্দ্র, যশেরআব্দা এলাকায় সওদাগর কৃষ্ণধন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র ও শহরতলীর তেতৈয়া ভোট কেন্দ্রে পুলিশের উপর হামলা, নির্বাচনী কাজে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বাধা, গাড়ি ভাঙচুর ও মারপিটসহ বিভিন্ন অভিযোগে হবিগঞ্জ সদর থানায় চারটি মামলা দায়ের করা হয়। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বাদী হয়ে এসব মামলা দায়ের করেন।

৪টি মামলায় হবিগঞ্জ-৩ (সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) আসনের বিএনপি মনোনীত ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী জি কে গউছ, তার ছোট ভাই জি কে গাফফার, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ রাজীব আহমেদ রিংগন, পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক মাহবুবুল হক হেলাল, জেলা জাসাসের সাবেক সভাপতি শাহ আলম চৌধুরী মিন্টু, ইউপি মেম্বার ছামিউন বাছিত, জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি কুহিনুর আলম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি জহিরুল হক শরীফ, জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফাতেমা ইয়াসমিন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি এমদাদুল হক ইমরান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাহবুব, জেলা মহিলা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দা লাভলি সুলতানা, পৌর মহিলা দলের সভাপতি সুরাইয়া আক্তার রাখি, সদর উপজেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি অলিউর রহমান অলি, সাংবাদিক এনামুল হক সায়েম ও সার্কুলেশন ম্যানেজার শাহজাহান মিয়াসহ ৪৮ নেতাকর্মী রবিবার হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন।

শুনানি শেষে বিচারপতি মোহাম্মদ হাফিজ ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের হাইকোর্ট বেঞ্চ তাদের ৪ সপ্তাহের আগাম জামিন মঞ্জুর করেন।

বিডি প্রতিদিন/২০ জানুয়ারি ২০১৯/আরাফাত


আপনার মন্তব্য