Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৯ ১৬:৩৬

যৌতুক লোভী স্বামী-শ্বশুরের হাতে নির্যাতিত স্কুল শিক্ষিকা

জামালপুর প্রতিনিধি :

যৌতুক লোভী স্বামী-শ্বশুরের হাতে নির্যাতিত স্কুল শিক্ষিকা
জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় যৌতুক লোভী স্বামী ও শ্বশুরের নির্মম নির্যাতনে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি শারমিন আক্তার (২৬) নামে এক স্কুল শিক্ষিকা। পাষণ্ড স্বামী ও শ্বশুর শারমিন আক্তারকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় একটি ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। 
 
পরে খবর পেয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর হারুন অর রশিদ ও আব্দুল্লাহ মিয়া নির্যাতনের শিকার ওই স্কুল শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। নির্যাতিতা শারমিন আক্তার স্থানীয় হযরত শাহজামাল (রহ:) বিদ্যা নিকেতনের সহকারী শিক্ষিকা।
 
বকশীগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মো: তাহেরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নির্যাতিতার মা সুরাইয়া বেগম লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ বিষয়ে মামলা গ্রহণের প্রস্তুতি এবং আসামীদের আটকের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। 
 
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বকশীগঞ্জ পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের চরকাউরিয়া মাস্টারবাড়ি এলাকার মৃত নূর ইসলামের মেয়ে শারমিন। ছয় বছর আগে বকশীগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের উত্তর মাঝপাড়া গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে আব্দুল মুমিনের সাথে তার বিয়ে হয়। তাসফিয়া নামে তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। 
 
তার স্বামী আব্দুল মমিন স্থানীয় অ্যাডভান্স কিন্ডার গার্টেনের সহকারী শিক্ষক। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্য তার স্বামী নির্যাতন করে আসছিল। চরকাউরিয়া বাজার এলাকায় শারমিন আক্তারের বাবার রেখে যাওয়া জমি জোরপূর্বক লিখে নেওয়ার জন্য বেশ কিছুদিন ধরে চাপ সৃষ্টি এবং নির্যাতন করছিলো। 
 
এরই জের ধরে শুক্রবার গভীর রাতে শারমিন আক্তারকে তার স্বামী আব্দুল মমিন এবং শ্বশুর হোসেন আলী লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত অবস্থায় ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে। নির্যাতনে শারমিন আক্তারের হাত, পিঠ, কোমর এবং পা রক্তাক্ত জখম হয়ে যায়। এ সময় শিশু সন্তান তাসফিয়াকেও নির্যাতন করে মায়ের সাথে বন্ধ করে রাখে।  
 
বিডি-প্রতিদিন/শফিক

আপনার মন্তব্য