শিরোনাম
প্রকাশ : ৬ এপ্রিল, ২০২০ ২০:১৫

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে সেতাবগঞ্জে জমজমাট হাট

দিনাজপুর প্রতিনিধি

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে সেতাবগঞ্জে জমজমাট হাট

করোনা সংক্রমণ রোধে প্রশাসন যখন রাতদিন মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে, ঠিক তখনি দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে সেতাবগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী সাপ্তাহিক হাট বসেছে। হাটে ছিল উপচে পড়া ভীড়। 

উত্তরবঙ্গের বৃহৎ সাপ্তাহিক সেতাবগঞ্জ হাটে এ অবস্থায় করোনাভাইরাস ঝুঁকিতে হাজার হাজার মানুষ।
পরে উপজেলা প্রশাসন দুপুরে হাটটি বন্ধ করে দেয়। 

গত ২৯ মার্চ উপজেলা প্রশাসন থেকে বোচাগঞ্জ উপজেলার সকল হাটবাজারসহ সেতাবগঞ্জের সাপ্তাহিক সোমবার হাটটি বন্ধ করতে মাইকিং করা হয়। ৩০ মার্চ (সোমবার) সেতাবগঞ্জের সাপ্তাহিক হাটবাজারটি সম্পূর্ণ বন্ধ থাকে। উপজেলা প্রশাসন থেকে মাইকিংয়ে বলা হয় পরর্বতী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত উপজেলার সকল হাটবাজার বন্ধ থাকবে।

কিন্তু এক সপ্তাহ পর সোমবার (৬ এপ্রিল) সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে সেতাবগঞ্জের সাপ্তাহিক হাটটি জমজমাটভাবে বসে।

গোটা দেশ যখন প্রাণঘাতী করোনা সংক্রমণ রোধে সকল শহর গ্রামগঞ্জে কাজ করে চলছে ঠিক তখনই বোচাগঞ্জের সাপ্তাহিক হাটের দৃশ্যটা যেন ঈদের বাজার। 

স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও সেনাবাহিনী গণসচেতনা সৃষ্টিতে নিরলসভাবে কাজ করলেও জনসাধরণের মাঝে তার কোনো প্রভাব পরছে না।

বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ফকরুল হাসান সেতাবগঞ্জ হাট বসার সংবাদ পেয়ে পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় সেতাবগঞ্জের চলমান এ হাটটি দুপুরে বন্ধ করে দেয়া হয়।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম 


আপনার মন্তব্য