শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ জুলাই, ২০২০ ১৯:৩১

কুড়িগ্রামে তিনশতাধিক বন্যার্তের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ

খন্দকার একরামুল হক সম্রাট, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে তিনশতাধিক বন্যার্তের মাঝে সেনাবাহিনীর ত্রাণ বিতরণ

কুড়িগ্রামে করোনা পরিস্থিতিতে শুরু থেকে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে ও স্বাস্থ্যবিধি মানায় জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কাজ করে আসছে। এবার উত্তরাঞ্চলের সব জেলার ন্যায় কুড়িগ্রামের বন্যা পরিস্থিতিতে বন্যার্তদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার কুড়িগ্রাম সদর ও চিলমারী উপজেলায় তিন শতাধিক বন্যার্ত মানুষকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

শনিবার দুপুরে জেলা সদরের ধরলা ব্রীজ সংলগ্ন নাগেশ্বরী-কুড়িগ্রাম সড়কের ওপর আশ্রয় নেয়া অর্ধশতাধিক বন্যার্ত মানুষকে খাদ্য সামগ্রী সহায়তা প্রদান করেন রংপুর সেনানিবাসের ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের অধীনস্থ ৩০ পদাতিক ব্যাটালিয়নের ক্যাপ্টেন মো. মিজান-উর-রশীদ ভূঁইয়া।

এছাড়াও চিলমারী উপজেলায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ওপর আশ্রয় নেয়া আরও আড়াই শতাধিক বানভাসী মানুষকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করে সেনাবাহিনী। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লেফটেন্যান্ট ইজাজ আহমেদ, সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার শেখ মাহবুবুল মোর্শেদ প্রমুখ। 

ত্রাণের মধ্যে ছিল চাল, ডাল, লবণ, তেল ও আলুসহ বিভিন্ন খাদ্য। 

ত্রাণ বিতরণকালে ক্যাপ্টেন মিজান উর রশীদ ভুঁইয়া বলেন, আমরা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে ত্রাণ বিতরণ করলেও সেইসাথে তাদের মনে করিয়ে দিচ্ছি যে এই বন্যা কবলিত অবস্থায় কিন্তু করোনার যে প্রতিরোধের ব্যবস্থা সেটি ভুলে গেলে হবে না। সেই বিষয়ে আমরা তাদের উদ্বুদ্ধ করছি। সামাজিক দূরত্ব যাতে তারা মেইনটেইন করে চলেন সেটিও আমরা তাদের মনে করিয়ে দিয়ে উদ্বুদ্ধ করছি। একই সাথে আমাদের বন্যা ও এ করোনার যে কার্যক্রম আছে সমরে আমরা, শান্তিতে আমরা, সর্বত্রময় দেশের তরে এ মূলমন্ত্রকে সামনে রেখে আমরা উভয় দুর্যোগকে মোকাবেলা করার চেষ্টা করছি। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর