শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুলাই, ২০২০ ১৮:৫১

‘পাহাড় ধস ঠেকাতে বৃক্ষের বিকল্প নেই’

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি

‘পাহাড় ধস ঠেকাতে বৃক্ষের বিকল্প নেই’

প্রাকৃতিক দুর্যোগ আর পাহাড় ধস ঠেকাতে বৃক্ষের বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেছেন রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার। তিনি বলেন, বৃক্ষ নিধনের ফলে পাহাড়ে পাহাড় ধস থামছে না। এতে যেমন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে মানুষের জানমাল, তেমনি পাহাড় তার ভারসাম্য হারাচ্ছে। একই সাথে বিরাট পরির্বতন এসেছে জলবায়ুতেও। ঝর্ণা শুকিয়ে যাচ্ছে। পানি সংকট বৃদ্ধি পেয়েছে পাহাড়ে। এখন আর  শীত বর্ষার তফাত খুঁজে পাওয়া  যায় না এখানে। পাহাড় ধস ঠেকানো না গেলে ভূমিকম্পও ঠেকানো যাবে না। তাই পাহাড় বাঁচাতে হলে অবশ্যই বিলুপ্ত বৃক্ষগুলো আবারও ফিরিয়ে আনতে হবে। তাই বেশি বেশি গাছ লাগাতে হবে। 

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণে বৃক্ষের চারা রোপন কর্মসূচির উদ্বোধনকালে কেন্দ্রীয় খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন। 

এসময় রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমা, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেকুর রহমান (পিএসসি), রাঙামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার ছুফি উল্লাহ ও পার্বত্য চট্টগ্রাম দক্ষিণ বনবিভাগ বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সানা উল্লাহ পাঠুয়ারী উপস্থিত ছিলেন।  

কেন্দ্রীয় খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার আরও বলেন, দেশের পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলকে বৃক্ষরোপণে উদ্বুদ্ধ করেছেন। এতে করে দেশের বনজ সম্পদ বৃদ্ধি ও পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর বিশেষ অর্থবহ ও সকলকে স্বতঃপ্রণোদিত করে তুলবে এই বৃক্ষরোপন কর্মসূচী।

পরে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস প্রাঙ্গনে সাড়ে তিন হাজার বৃক্ষের চারা রোপন কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। শুধু তাই নয়, রাঙামাটি জেলা প্রশাসক ও বন বিভাগের উদ্যোগে জেলা ব্যাপী সাড়ে তিন হাজার বৃক্ষ রোপন করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য