শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:৫১
আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০৮
প্রিন্ট করুন printer

ঠাকুরগাঁওয়ে হাসপাতালে আহত ব্যক্তিকে মারধর

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ে হাসপাতালে আহত ব্যক্তিকে মারধর

ঠাকুরগাঁওয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হয়ে ৫ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এক পক্ষ বলছে- বড়ইপারাকে কেন্দ্র করে, অপরপক্ষ বলছে- জমিজমাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে জেলা শহরের এসিল্যান্ড বস্তি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- আলম (৫০), আদম (৪৭), লাবু (২২), সাকিলা আক্তার (৩৮), রেজাউল (৫০)।

পুলিশ জানায়, আদম আলীর প্রতিপক্ষ রসুলের সাথে দ্বন্দ্বের জেরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এ সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ঘটনাস্থলেই ৫ জন আহত হয়। পরে গুরুতর অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ।

আদম আলীর পরিবারের স্বজনদের দাবি- বাড়ির পাশে বড়ইপারাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ রসুলের লোকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। এতে তাদের লোকজনই বেশি আঘাতপ্রাপ্ত হয়। 
অপরপক্ষে রইসুলের স্বজনরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে আদম আলীর পরিবারের সাথে দ্বন্দ্ব চলছিল। তারা জোরপূর্বক আমাদের কিছু জমি দখল করেছে। এ ব্যাপারে মামলা চলমান রয়েছে।

আধুনিক সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত কয়েকজন কর্মচারী বলেন, হাসপাতালে এ ধরনের ঘটনা ঘটলে আমাদের নিরাপত্তা দেবে কে? আমাদের জন্য দায়িত্ব পালন করাটাই কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে।

আধুনিক সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মেইসাম সোহবান বলেন, জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রেজাউলকে ৬-৭ জনের একটি দল এসে ব্যাপক মারধর করতে থাকে। এ সময় পুলিশ এসেও তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারছিল না।

এ বিষয়ে সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে জানা যায় বড়ইপাড়াকে কেন্দ্র করে আদম আলীর পরিবারের সদস্যদের সাথে রইসুলের পরিবারের সদস্যদের দ্বন্দ্ব বাঁধে। উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষে আহত হয়ে ৫ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এখনো পর্যন্ত থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর