শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ এপ্রিল, ২০২১ ১৯:১৯
প্রিন্ট করুন printer

সালথা তাণ্ডব: তিন কোটি টাকার ক্ষতি, আটক ৬১

ফরিদপুর প্রতিনিধি

সালথা তাণ্ডব: তিন কোটি টাকার ক্ষতি, আটক ৬১

ফরিদপুরের সালথায় উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন সরকারি স্থাপনায় হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় কমপক্ষে তিন কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

রবিবার সকালে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার এর কাছে এ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আসলাম মোল্লা।  

তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আসলাম মোল্লা বলেন, তদন্তে ক্ষয়ক্ষতির যে বিবরণ পাওয়া গেছে, তাতে প্রায় তিনকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন তিনি জেলা প্রশাসকের কাছে হস্তান্তর করেছেন বলে জানান।

সালথার তাণ্ডবের ঘটনার বিষয়ে অনুসন্ধানে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. তাসলিমা আলীকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। অন্যদিকে ক্ষয়ক্ষতি নিরুপনে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আসলাম মোল্যাকে প্রধান করে আরেকটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, সালথার সহিংসতার ঘটনায় দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। রবিবার একটি কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ আসলাম মোল্যা তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। এছাড়া অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোছা. তাসলিমা আলীকে প্রধান করে আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটির প্রতিবেদন জমা দিতে আরো দুই দিন সময় লাগবে।

এদিকে সহিংসতার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে গ্রেফতার ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়াল ৬১। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জামাল পাশা বলেন, সালথার ঘটনায় এ পর্যন্ত মোট ৬১ জনকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে গ্রেফতার রয়েছেন। তাঁদের পুলিশি পাহারায় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। জামাল পাশা বলেন, আটককৃত ব্যক্তিদের মধ্যে এ পর্যন্ত আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে ৫৮ জনকে। এর মধ্যে ৪৮ জনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে। তাঁদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় এ পর্যন্ত সালথা থানায় মোট পাঁচটি মামলা করা হয়েছে। সালথা থানার এস আই (উপ পরিদর্শক) মিজানুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাচ্চু মাতুব্বর, ইউএনওর গাড়িচালক মো. হাশমত আলী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কার্যালয়ের নিরাপত্তারক্ষী সমীর বিশ্বাস ও উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) গাড়িচালক মো. সাগর সিকদার বাদী হয়ে মামলাগুলো দায়ের করেন। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর