শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ মে, ২০২১ ১৭:১৯
প্রিন্ট করুন printer

ফুলবাড়ীতে নববধূর লাশ উদ্ধার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

ফুলবাড়ীতে নববধূর লাশ উদ্ধার
ফাইল ছবি

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে এক নববধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, অভিমান করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ওই নববধূ আত্নহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সদর উপজেলার চন্দ্রখানা কলোনী পাড়া গ্রামে। নিহত ওই নববধূর নাম রুমি খাতুন (১৯)।

তিনি উপজেলা সদরের চন্দ্রখানা কলোনী পাড়া গ্রামের স্যানেটারী মিস্ত্রি ইয়াছিন আলীর স্ত্রী। তার বাবার বাড়ী উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউনিয়নের বোয়াইল ভীড় গ্রামের রমজান আলীর মেয়ে।

এলাকাবাসীরা জানান, চার মাস আগে রুমী ও ইয়াছিনের পারিবারিকভাবে বিয়ে সম্পন্ন হয়।প্রতিদিনের মত রুমী ও তার স্বামী সেহেরী খাওয়ার পরে দুজনে একই ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। সোমবার সকাল ৯টার দিকে প্রতিবেশী হাসিনা ভিলার মালিক আক্কাছ আলীর এক কিশোরী কাজের মেয়ে পানির লাইন মেরামতের জন্য ইয়াছিন আলীর বাড়ীতে আসে। এসময় ঘরের বাইরে থেকে সে ইয়াছিনকে ডাকে। কিন্তু কোন সাড়া না পেয়ে সে ঘরে ঢুকে। এসময় স্ত্রীর পাশে শুয়ে থাকা ইয়াছিনের হাত ধরে টান দিলে তিনি হাত ঝাঁকুনি দিলে ধাক্কা খেয়ে কিশোরী টিনের বেড়ায় গিয়ে পড়ে। এতে শব্দে পাশে শুইয়ে থাকা স্ত্রী রুমির ঘুম ভেঙে যায়।পরে তিনি তার স্বামীকে ওই কিশোরী ঘরে থাকা নিয়ে সন্দেহ করেন।এক পর্যায়ে কথা কাটাকাটি শুরু হয় তাদের এবং তার সাথে আর সংসার করবেন না জানিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে যান রুমি। এরপর বাড়ির লোকজন তাকে বুঝিয়ে নিয়ে বাড়িতে আসেন।এরই মধ্যে রুমি এসে ঘরে ঢুকে দরজা লাগিয়ে ঘরের বাঁশের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্নহত্যা করেন।পরে খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে। 

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) রাজিব কুমার রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 

এই বিভাগের আরও খবর