শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ মে, ২০২১ ০০:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে সুন্দরবনের প্রাণ-প্রকৃতির ব্যাপক ক্ষতি

শেখ আহসানুল করিম, বাগেরহাট:

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে সুন্দরবনের প্রাণ-প্রকৃতির ব্যাপক ক্ষতি
Google News

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য ও অবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ইয়াসের জলোচ্ছাসে হরিণসহ অনেক বন্যপ্রাণী পানির তোড়ে ভেসে গেছে। জলোচ্ছাসে ভেসে যাওয়া এসব বন্যপ্রাণীর মধ্যে ৪টি হরিণ ও বিশ্বের বিলুপ্ত প্রজাতির ১টি ইরাবতী ডলফিনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে সুন্দরবন বিভাগ। 

সুন্দরবন সন্নিহতি মঠবাড়ীয়া উপজেলার পল্লী থেকে জলোচ্ছাসে ভেসে যাওয়া ২টি হরিণকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করে গ্রামবাসীরা তুলে দিয়েছে সুন্দরবন বিভাগের কাছে। সুন্দরবনে এবারের ঘূর্ণিঝড়ে ৬ থেকে ৮ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছাসে হরিণসহ অনেক বন্যপ্রাণী ভেসে গেছে। জলোচ্ছাসের পানির তোড়ে সুন্দরবনের দুটি বিভাগের মধ্যে বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগে ৬টি বন অফিসসহ আবকাঠামোর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। 

সুন্দরবনের ৪টি রেঞ্জের মধ্যে দুটি শরণখোলা ও চাঁদপাই রেঞ্জে অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতির মধ্যে ৬টি বন অফিস, ৭টি স্টাফ ব্যারাক হাউজ, ২০টি জেটি, ১জি রেষ্ট হাউজ, সুন্দরবন পাহারার ১১টি জলযান, ১টি ওয়াচ টাওয়ার, ২টি পায়ে হাটা উচু করে তৈরী কাঠের রাস্তা, ২টি গোলঘর ও  করমজল বন্যপ্রানী প্রজনন কেন্দ্রের কুমিরের ১১পি প্যান। বন্যপ্রাণী, বন কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বনজীবীদের সুপেয় পানির জন্য পাড় উচু করে সদ্য খনন করা ১১টি পুকুরেও জলোচ্ছাসের সমুদ্রের তীব্র লবনাক্ত পানিতে তলিয়ে গেছে। 

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, সুন্দরবনের নদ-নদীতে এখনো প্রবল ঢেউ থাকায় পানি ওঠা সব এলাকায় পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর বনের সব এলাকায় যাওয়ার পর বন্যপ্রাণীর ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে। সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্যসহ অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি সঠিক চিত্র তুলে আনতে প্রতিটি রেঞ্জের সহকারী বন কর্মকর্তাদের নেতৃত্বে কমিটির সদস্যরা কাজ করছে। ক্ষয়ক্ষতির চূড়ান্ত রিপোর্ট পেতে আরও কয়েক দিন সময় লাগবে। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 

এই বিভাগের আরও খবর