শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ জুলাই, ২০২১ ২১:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

অপহরণের ১০ দিন পর মাদ্রাসা ছাত্রী উদ্ধার, আটক ১

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

অপহরণের ১০ দিন পর মাদ্রাসা ছাত্রী উদ্ধার, আটক ১
Google News

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থী অপহরণের ১০ দিন পর নড়াইল জেলা থেকে উদ্ধার করেছে আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশ। 

শনিবার (২৪ জুলাই) রাতে নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রাম থেকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় জিয়া ফকির (৪০) নামে অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়। 

রবিবার (২৫ জুলাই) অপহরণকারী ব্যক্তিকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে এবং ছাত্রীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কলেজে নেওয়া হয়েছে। 

থানা সূত্রে জানা যায়, জেলার বোয়ালমারী উপজেলার রূপাপাত গ্রামের ছাত্তার ফকিরের ছেলে জিয়া ফকির বাড়িতে বাড়িতে ফেরি করে বিভিন্ন মালামাল বিক্রয় করে। ফেরি মালামাল বিক্রির সুবাদে মাঝে মধ্যেই আলফাডাঙ্গা উপজেলার পাড়াগ্রামের কুদ্দুস মোল্যার বাড়িতে তার যাতায়াত ছিল। ওই ছাত্রী বুড়াইচ ইউনিয়নের শিয়ালদী আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণী লেখাপাড়া করে। ওই বাড়িতে যাতায়াতের মধ্যে দিয়ে জিয়া ফকির ওই ছাত্রীকে একদিন প্রেমের প্রস্তাব দেয়। 

বিষয়টি পরিবারের লোকজনের মধ্যে জানাজানি হলে জিয়া ওই বাড়িতে আসা বন্ধ করে দেয়। এর জের ধরে গত ১৫ জুলাই বিকেলে ওই ছাত্রী বাড়ি থেকে ওষুধ কেনার জন্য পাশের হেলেঞ্চা বাজারে যাওয়ার পথে টিকরপাড়া ব্রীজের ওপর পৌঁছালে অভিযুক্ত জিয়া ফকির ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক অপহরণ করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। ঘটনার দিন সন্ধ্যা হয়ে গেলেও মেয়ে বাড়িতে না ফেরায় অনেক খোঁজাখুঁজি করে বিভিন্ন মাধ্যমে পরিবার জানতে পারে তাকে অপহরণ করা হয়েছে। ওই ছাত্রীর মা বাদি হয়ে গত ১৯ জুলাই আলফাডাঙ্গা থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আলফাডাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক মো. ইউনূচ আলী বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি তার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শনিবার রাতে নড়াইল জেলার গোপিনাথপুর এলাকা থেকে ছাত্রীকে উদ্ধার করেন। অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে রবিবার আদালতে পাঠানো হয়েছে। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই বিভাগের আরও খবর