৫ আগস্ট, ২০২১ ০০:৩৬

এবার পাবনায় মেডিকেল ছাত্রীকে খালি সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগ

পাবনা প্রতিনিধি

এবার পাবনায় মেডিকেল ছাত্রীকে খালি সিরিঞ্জ পুশের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের পর এবার পাবনায় করোনার টিকা না দিয়ে এক মেডিকেল ছাত্রীর দেহে ‘খালি’ সিরিঞ্জ পুশ করার অভিযোগ উঠেছে। টিকা দেওয়ার ফাইল ছবি

টাঙ্গাইলের পর এবার পাবনায় করোনার টিকা না দিয়ে এক মেডিকেল ছাত্রীর দেহে ‘খালি’ সিরিঞ্জ পুশ করার অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে শহরে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।

একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মানব সম্পদ বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক আব্দুল হান্নান অভিযোগ করেন, তার মেয়ে ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজের শেষবর্ষের ছাত্রী সাবা মারিয়াম অন্তিকা বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট পাবনা জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল স্টুডেন্ট  কোঠায় করোনার টিকা নিতে যান। দীর্ঘসময় লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার পর দায়িত্বপ্রাপ্ত এক নার্স তাকে খালি সিরিঞ্জ দিয়ে শরীরে সুচ ফুটানোর চেষ্টা করেন। এতে তার শরীর থেকে রক্ত বের হয়। ওই মেডিকেল ছাত্রী ভ্যাকসিন না দিয়ে খালি সিরিঞ্জ ঢুকানোর প্রতিবাদ করলে কর্তব্যরত নার্স ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং পরে তাকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে শহরে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

আব্দুল হান্নান বলেন, একজন মেডিকেল স্টুডেন্টের বেলায় যদি এ ঘটনা ঘটে। তবে গ্রামের সাধারণ মানুষের কী হবে ? তিনি আরও বলেন, ইচ্ছাকৃতভাবে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে এটা একটা গভীর ষড়যন্ত্র। প্রয়োজনে এ বিষয়ে আদালতে মামলা করা হবে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর বলেন, ‘এ বিষয়ে আমাকে কিছু জানায়নি। তবে লিখিত অভিযোগ দিলে, কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন দুজন করে ভ্যাকসিন প্রদানের দায়িত্ব পালন করেন। তাদের চিহিৃত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে।’

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী বলেন, ‘এ বিষয়ে খুব শিগগির তদন্ত কমিটি গঠন করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর