শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ আগস্ট, ২০২১ ২২:১৯
প্রিন্ট করুন printer

অপহরণ করে নির্যাতনের ভিডিও পাঠিয়ে মুক্তিপণ আদায়, অতঃপর...

গাজীপুর প্রতিনিধি

অপহরণ করে নির্যাতনের ভিডিও পাঠিয়ে মুক্তিপণ আদায়, অতঃপর...
অপহৃত রহিম (চেয়ারে বসা) এবং গ্রেফতার অপহরণকারীরা (পেছনে দাঁড়িয়ে)
Google News

গাজীপুরে এক গার্মেন্টস কর্মীকে অপহরণ করে নির্যাতন ও নির্যাতনের ভিডিও করে মুক্তিপণ আদায় করে অপহরণকারী চক্র। পুলিশ ওই অপহৃতকে উদ্ধার এবং ৫ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার জিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ উত্তর) জাকির হাসান এ তথ্য জানান।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন টাঙ্গাইল সদর থানার নেওয়ারগাছা এলাকার মনির হোসেনের ছেলে আফজাল হোসেন (৪৩), একই জেলা ও থানার ডুবাইল এলাকার হারেজ আলীর ছেলে সোহেল রানা (২২), চৌবাড়ীয়া এলাকার মৃত সাইদুল ইসলামের ছেলে আছাদুল ইসলাম (৩০), মৃত জাবেদ আলী ছেলে মকবুল হসেম রনি (২৯) ও বকুল মিয়ার ছেলে বাবু হোসেন (২০)।

উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ উত্তর) জাকির হাসান জানান, জিএমপির কোনাবাড়ি থানাধীন বিসিক এলাকার গার্মেন্টস কর্মী রহিম বাদশা। একসময়ের সহকর্মী আফজালের মাধ্যমে সাব কন্ট্রাক্টের কাজের অর্ডার আছে বলে গত ২৪ আগষ্ট রহিম বাদশাকে কড্ডা ব্রীজ সংলগ্ন ময়লা স্তুুপের পাশে এনে অপহরণ করে। পরে অপহরণকারী চক্র তাকে নির্যাতন ও ভিডিও করে এবং ভিকটিমের মোবাইল দিয়ে কল করে লক্ষাধিক টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। ভিকটিমের আত্মীয় স্বজন তিন বারে ৩০ হাজার টাকা প্রদান করে। পরে এক পর্যায়ে ২৭ আগষ্ট কোনাবাড়ি থানায় মামলা করে। মামলা দায়েরের ৫ ঘণ্টার মধ্যে গাজীপুর ও টাঙ্গাইলের বিভিন্ন এলাকা অভিযান পরিচালনা করে অপহৃত রহিমকে উদ্ধার ও ৫ অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় অপহরণের কাজে ব্যবহৃত হাইয়েস গাড়ি ও নির্যাতনের ভিডিও রেকর্ডের কাজে ব্যবহৃত মোবাইল সেট জব্দ করা হয়।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর