শিরোনাম
২২ অক্টোবর, ২০২১ ২২:২৪

বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

গাজীপুর প্রতিনিধি:

বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

গাজীপুরে ইয়াবা সেবনকালে অতীত স্মৃতি নিয়ে গল্পের জেরে একে অপরের চাপাতির আঘাতে এক বন্ধু খুন ও অপর বন্ধু আহত হয়েছেন। শুক্রবার গাজীপুর শহরের মধ্য ছায়াবিথী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বন্ধুকে খুনের এ ঘটনায় আহত শেখর দাসকে (৪৭) আটক করেছে পুলিশ। 

নিহতের নাম- সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন তাপস (৫০)। সে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের সদর থানাধীন মধ্য ছায়াবিথী এলাকার আলাউদ্দীন আহমেদের ছেলে। তার বন্ধু আটক শেখর দাস (৪৭) একই এলাকার সরু মিয়া রোডের মৃত ননী গোপাল দাসের ছেলে। 

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) সদর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, বৃহষ্পতিবার মধ্যরাতে শেখর দাস প্রায় প্রতিদিনের মতো তার দীর্ঘদিনের বন্ধু তাপসের বাড়ি যায়। মাদকাসক্ত ওই দুই বন্ধু সেখানে রাতভর ইয়াবা টেবলেট সেবন করে। শুক্রবার ভোরে ইয়াবা সেবনকালে অতীত স্মৃতি নিয়ে গল্প করার সময় তাদের মাঝে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে তাপস চাপাতি দিয়ে শেখরের হাতে কোপ দিলে সে আহত হয়। এসময় তাপসের কাছ থেকে চাপাতি ছিনিয়ে নিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে শেখর। এতে দু’জনেই আহত হয়। তাদের চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এসে গুরুতর আহত দুই বন্ধু তাপস ও শেখরকে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তাপসের অবস্থার অবনতি হলে তাকে সেখান থেকে আশংকাজনক অবস্থায় রাজধানীর উত্তরায় হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তাপস মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং আলামত জব্দ করে। 

খুনের এ ঘটনায় নিহতের বন্ধু শেখর দাসকে আটক করে পুলিশ। আহত শেখর দাস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এএম

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর